corona virus btn
corona virus btn
Loading

প্রতিবেশীর সঙ্গে স্ত্রীর সম্পর্ক, বিদ্যুতের তার ছড়িয়ে মরণফাঁদ

প্রতিবেশীর সঙ্গে স্ত্রীর সম্পর্ক, বিদ্যুতের তার ছড়িয়ে মরণফাঁদ
  • Share this:

প্রতিবেশীদের বাড়ির সামনে বিদ্যুতের তার ছড়িয়ে মরণফাঁদ। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মহেশতলায় মৃত্যু হল তিন জনের। আহত আরও কয়েকজন। অভিযুক্তকে ধরে গণপিটুনি। প্রতিবেশীর সঙ্গে স্ত্রীর সম্পর্ক। প্রতিশোধ নিতেই মৃত্যুফাঁদ তৈরি করেছিল অভিযুক্ত রবিউল।

জাকির হোসেন। সুলতান শেখ। শেখ আহমেদ ওরফে রিঙ্কু। এক রাতের মধ্যে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে তিন জনের মৃত্যু। আহত আরও কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। দুর্ঘটনা নয়। পরিকল্পনা করে মহেশতলার আক্রার বগা নোয়াপাড়ায় তিন জনকে খুন। ঘটনা সূত্রপাত কয়েক মাস আগে।

- (এখানে) ভাড়া বাড়িতে স্ত্রীকে নিয়ে থাকত রবিউল

- প্রতিবেশী শেখ রোহিতের সঙ্গে স্ত্রীর বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক তৈরি হয়

- (মাসখানেক আগে) প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে যায় রোহিতের স্ত্রী

প্রতিবেশীরা জানান, ২ মাস আগে প্রেমিক শেখ রোহিতকে দিয়ে রবিউলকে মার খাইয়েছিল তাঁর স্ত্রী। সঙ্গে ছিল প্রেমিকের জামাইবাবু শেখ আহমেদ ওরফে রিঙ্কুও। তাই স্ত্রীর প্রেমিককে না পেয়ে, প্রতিশোধে তাঁর আত্মীয়কে খুনের ছক কষে রবিউল।

বুধবার রাতে শেখ আহমেদের বাড়ির সামনে বিদ্যুতের তার ছড়িয়ে দেয় রবিউল। প্রতিবেশীরা যাতে বাঁচাতে না পারেন, তাঁদের বাড়ির সামনেও একইভাবে ছড়ানো ছিল বিদ্যুতের তার। রাতে আহমেদের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয় রবিউল। বেরোতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয় আহমেদ। তাঁদের বাঁচাতে গিয়ে মৃত্যু হয় আরও ২ প্রতিবেশীর।

ঘটনার পর থেকেই এলাকায় বেপাত্তা ছিল অভিযুক্ত রবিউল। বৃহস্পতিবার সকালে তাঁকে টালিগঞ্জে দেখতে পেয়ে আক্রায় নিয়ে আনেন এক প্রতিবেশী। এরপরই অভিযুক্তকে গণপিটুনি।

পেশায় রাজমিস্ত্রি। কিম্তু, মুর্শিদাবাদের বাসিন্দা রবিউল ইলেকট্রিকের কাজ জানত। তাই প্রতিশোধ নিতে বিদ্যুতের তার ছড়িয়ে মৃত্যুফাঁদ।

First published: July 19, 2019, 9:17 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर