একই দিনে একই বিধানসভায় মমতা-যোগীর প্রচার, পাল্টা অভিযোগে পরস্পরকে বিঁধলেন দুই মুখ্যমন্ত্রী

একই দিনে একই বিধানসভায় মমতা-যোগীর প্রচার, পাল্টা অভিযোগে পরস্পরকে বিঁধলেন দুই মুখ্যমন্ত্রী

একই দিনে একই বিধানসভায় মমতা-যোগীর প্রচার,

একদিকে হিন্দুত্ববাদ নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের আক্রমণ। অন্যদিকে উত্তরপ্রদেশের আইন শৃঙ্খলার অবনতি নিয়ে পাল্টা অভিযোগ তৃণমূল নেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

  • Share this:

#বাঁকুড়া: একদিকে হিন্দুত্ববাদ নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের আক্রমণ। অন্যদিকে উত্তরপ্রদেশের আইন শৃঙ্খলার অবনতি নিয়ে পাল্টা অভিযোগ তৃণমূল নেত্রী তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। মঙ্গলবার দিনভর অভিযোগ আর পাল্টা অভিযোগে বাঁকুড়া রায়পুর বিধানসভা এলাকা কার্যত সরগরম থাকল দুই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর মেগা প্রচারে।

এদিন নির্বাচনী জনসভায় হিন্দুত্ববাদকে উসকে দিয়ে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেন "রামকে আমাদের জীবন থেকে কেউ আলাদা করতে পারবে না। তাই মমতা দিদি বেশিদিন থাকবে না যেদিন থেকে রামের বিরোধিতা তিনি শুরু করেছেন।" এদিন বাঁকুড়া রায়পুর থেকে একের পর এক প্রসঙ্গ তুলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কড়া আক্রমণ করেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। কেন্দ্রের বিভিন্ন প্রকল্প কার্যকর না করার থেকে শুরু করে তোলাবাজি, কাটমানি প্রসঙ্গ তুলে প্রত্যেকটি নিয়েই চড়া আক্রমণ করেন মমতাকে।

তৃণমূল নেত্রী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নির্বাচনী সভা থেকে বারবারই উত্তরপ্রদেশের আইন-শৃঙ্খলার অবনতি নিয়ে প্রশ্ন তুলতে দেখা গিয়েছে। মঙ্গলবার নাম না করে কার্যত তারই উত্তর দিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। এদিন উত্তরপ্রদেশে একাধিক উন্নয়নের প্রসঙ্গ তুলে ধরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাল্টা আক্রমণ করেন যোগী আদিত্যনাথ। তিনি বলেন "উত্তর প্রদেশ এখন উন্নতির শিখরে।" প্রসঙ্গত উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সভা শেষ হওয়ার এক ঘণ্টা পরেই সভা শুরু হয় তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

দুই সভার মধ্যে দূরত্ব ১৫ কিলোমিটার হলেও দুই সভা নিয়েই গোটা বাঁকুড়া সরগরম ছিল। যদিও এদিন যোগী আদিত্যনাথকে কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি তৃণমূল নেত্রী। বাঁকুড়া রায়পুরের নির্বাচনী জনসভা থেকেই তৃণমূল নেত্রী কটাক্ষ করে বলেন "কোথা থেকে যোগী চলে এলো। আসলে সে ভোগী। তার মিটিং-এ কোনও লোক হয়নি।"

যদিও এদিন এই নির্বাচনী সভা থেকে উত্তর প্রদেশের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে ফের সরব হয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন " দলিতদের উপর অত্যাচার হয়েছে। উত্তরপ্রদেশে একটাকেও গ্রেফতার করা হলো না।" বিজেপির বিরুদ্ধে নির্বাচনী জনসভা থেকে সুর চড়ান তৃণমূল নেত্রী। তিনি বলেন " চক্রান্ত করছে কীভাবে মমতাকে মেরে ফেলা যায়। দরকার হলে আমি ভাঙা পা নিয়েও ইলেকশন কমিশনের সামনে ধর্না দেব। বাংলাকে দখল করে ওরা লুটেপুটে খেতে চায়। বাংলা জিতলে ভারতবর্ষ থেকে ওরা বিদায় নেবে।" এদিনের নির্বাচনী সভা থেকে "বদলা নেব" স্লোগান শোনা যায় তৃণমূল নেত্রীর গলায়। এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তৃণমূল নেত্রী বলেন " বদলা মানে বন্দুকের নল দিয়ে নয়। শান্তি বজায় রেখে বদলা নেব।"

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

লেটেস্ট খবর