চুরির অপবাদে নির্মম অত্যাচার, নখ উপড়ে, হাত-পা ভেঙে বেধড়ক মার, হাসপাতালে মৃত্যু প্রৌঢ়ের

চুরির অপবাদে নির্মম অত্যাচার, নখ উপড়ে, হাত-পা ভেঙে বেধড়ক মার, হাসপাতালে মৃত্যু প্রৌঢ়ের
  • Share this:

#হাবড়া: খেত থেকে পটল চুরির অভিযোগে এক প্রৌঢ়কে নির্মমভাবে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল। শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে হাবড়ার মথুরাপুরে। আজ সকালে আরজি কর হাসপাতালে মৃত্যু হয় বছর পঞ্চাশের রমজান আলি মণ্ডলের। তাঁর নখ উপড়ে, হাত-পা ভেঙে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্তরা।

সামান্য চুরির অভিযোগ। তাতেই রমজান আলি মণ্ডলের যে পরিণতি হল, তা শিউড়ে ওঠার মতো। নখ উপড়ে, হাত-পা ভেঙে তাঁকে মৃতপ্রায় অবস্থায় ফেলে রাখা হয়েছিল। শেষপর্যন্ত হাসপাতালে নিয়ে গিয়েও বাঁচানো গেল না বছর পঞ্চাশের এই ব্যক্তিকে। উত্তর চব্বিশ পরগনার হাবড়া থানার গুমা বালুইগাছি এলাকায় বাড়ি রমজান আলি মণ্ডলের। শনিবার রাতে মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে তাঁর পাশের গ্রাম মথুরাপুরে। নিহতের আত্মীয়দের অভিযোগ,

- খেত থেকে পটল চুরির অভিযোগে রমজান আলির ওপর চড়াও হয় লাল মিঞা এবং চাঁদ মিঞা নামে দুই ভাই

- তাঁর হাত-পা বেঁধে বেধরক মারধর করা হয়

- উপড়ে ফেলা হয় দু'হাতের নখ

- দেশলাই দিয়ে চোখ ও কান পুড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়

আশঙ্কাজনক অবস্থায় শনিবার রাতেই তাঁকে উদ্ধার করে হাবড়া থানার পুলিশ। ভরতি করা হয় হাবড়া হাসপাতালে। অবস্থার অবনতি হওয়ায় প্রৌঢ়কে রেফার করা হয় কলকাতার আরজি কর হাসপাতালে। সোমবার সকালে সেখানেই মৃত্যু হয় রমজান আলি মণ্ডলের। তাঁর পরিবারের দাবি, মিথ্যা অভিযোগে খুন করা হল রমজান আলিকে।

রবিবার রাতেই হাবড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করে রমজান আলির পরিবার। তবে ঘটনার পর থেকেই এলাকাছাড়া অভিযুক্তরা।

First published: 05:05:52 PM Feb 18, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर