corona virus btn
corona virus btn
Loading

শিয়রে NRC, মা-বাবার বিয়ে দেখল ছেলে মেয়েরা

শিয়রে NRC, মা-বাবার বিয়ে দেখল ছেলে মেয়েরা

বাবার মালাবদল, সিঁদুরদান দেখে কবজি ডুবিয়ে ভোজও খেল সকলেই।

  • Share this:
SARADINDU GHOSH
#বর্ধমান :  শিয়রে এনআরসি আতঙ্ক। তার জেরে বাবার বিয়ে দেখল ছেলে মেয়েরা। বাবার মালাবদল, সিঁদুরদান দেখে কবজি ডুবিয়ে ভোজও খেল সকলেই। আত্মীয় পরিজন বন্ধু বান্ধবদের সাক্ষী রেখে ছেলেমেয়েদের পাশে নিয়ে রেজিস্ট্রি বিয়ে সেরে ফেললেন কালনার বহ্নিশিখা ক্লাবের পনেরো জন সদস্য।
এখন কার্ড আর নথি ছাড়া দেশে বসবাস করাই দায়। ভোটার, আধার, প্যান, রেশন কার্ড সামলানোর হ্যাঁপার সঙ্গে যোগ হয়েছে একে অপরের ই লিঙ্ক। তাতেও রক্ষা নেই। সামনে এসেছে এনআরসির গেরো। নিজেকে দেশের নাগরিক প্রমাণ করতে হবে সকলকেই। সেজন্য চাই প্রামাণ্য সব তথ্য। সেই তথ্য প্রমাণ পোক্ত করতেই রেজিস্ট্রি বিয়ে সারলেন পনের জন প্রবীণ সদস্য। সানাই, রজনীগন্ধা, উলুধ্বনি, মালাবদলে গণবিবাহের মজা নিলেন উপস্থিত সকলেই।
MARREAGE 01
সকলেই নহবত বসিয়ে আত্মীয় পরিজন নিমন্ত্রণ করে অনেক আগেই বিয়ে করেছিলেন। কিন্তু সেই সামাজিক  বিয়ের আইনি বৈধতা নেই। আবার নমিনি থেকে অনেক কিছুতেই ম্যারেজ রেজিস্ট্রি সার্টিফিকেট আবশ্যক। সেই নথিও তাঁদের ছিল না। তাই অনেকেই ছেলে বউমা নাতি নাতনিদের সামনে রেখেই  বসলেন বিয়ের পিঁড়িতে।
MARREAGE 02
নতুন পাঞ্জাবি পরে পুরনো স্ত্রীকে নতুন করে বিয়ের মজা উপভোগ করলেন সকলেই। ছেলে বউমার সামনে নতুন বেনারসিতে লাজে রাঙা হলেন কনে বউরা।
 স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে বাবা মায়ের এই বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন  স্থানীয় বাসিন্দা অনির্বাণ মিশ্র। বললেন,  ‘বাবার বিয়ের কথা শুনেছি। আজ দেখলাম। ম্যারেজ রেজিস্ট্রি  সার্টিফিকেট আজকের দিনে খুব জরুরী নথি। এই অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে সবাইকে সেই বার্তা দেওয়া গেল।’
অপর এক বাসিন্দা সুব্রত ঘোষ বলেন, ‘এনআরসি নিয়ে দেশজুড়ে শোরগোল চলছে। কাগজ পত্র ঠিক রাখা খুব প্রয়োজন। সেজন্যই ক্লাবের পক্ষ থেকে এই রেজিস্ট্রি বিয়ের আয়োজন।’
এমন অভিনব গণবিবাহে উপস্থিত থাকার সৌভাগ্য আগে হয়নি- স্বীকারোক্তি ম্যারেজ রেজিস্ট্রার সুরূপা মুখোপাধ্যায়ের। তিনি জানালেন, আগে শুধুমাত্র সামাজিক বিয়ে হলেও এখন রেজিস্ট্রি ম্যারেজ সকলেই করছেন। এক সঙ্গে এতোজনের রেজিস্ট্রি ম্যারেজ এই প্রথম দেখলাম।
বাঙালির বিয়ের অনুষ্ঠান। ভোজ থাকবে না তা কখনও হয়। বিয়ের পর ম্যেনুতে পনির ,মাছ, মাংস, চাটনি পাঁপড় সবই ছিল। ছিল জিভে জল আনা নলেন গুড়ের রসগোল্লাও। সব মিলিয়ে মধুরেন সমাপায়েত বলাই যায় ।
আরও দেখুন
First published: December 17, 2019, 3:59 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर