গৃহকর্ত্রীর মাথায় ভোজালির কোপ মেরে লুঠপাট

গৃহকর্ত্রীর মাথায় ভোজালির কোপ মেরে লুঠপাট

গৃহকর্ত্রীর মাথায় ভোজালির কোপ মেরে চলল লুঠপাট। বাধা দিলে মারধর করা হয় ছেলেকেও। দরজা ভেঙে বাড়িতে ঢুকে তাণ্ডব চালায় সশস্ত্র ডাকাতদল।

  • Share this:

#এগড়া: গৃহকর্ত্রীর মাথায় ভোজালির কোপ মেরে চলল লুঠপাট। বাধা দিলে মারধর করা হয় ছেলেকেও। দরজা ভেঙে বাড়িতে ঢুকে তাণ্ডব চালায় সশস্ত্র ডাকাতদল।

পূর্ব মেদিনীপুরের এগরা শহরে থানা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে ডাকািতর ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়। এগরা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে আক্রান্ত মহিলাকে।

পূর্ব মেদিনীপুরের এগরা শহর। শনিবার রাতে শহরের ন’নম্বর ওয়ার্ডে ব্যবসায়ীর বাড়িতে চড়াও হয় সশস্ত্র ডাকাতদল। গৃহকর্ত্রীর মাথায় ভোজালির কোপ মেরে লুঠপাট চালায় তারা।

শনিবার তখন রাত দু’টো। ব্যবসায়ী শোভন কোটালের বাড়িতে দরজা ভেঙে ঢোকে কমপক্ষে সাত দুষ্কৃতী। মুখে বাঁধা ছিল কালো কাপড়। শোভনের মা সন্ধ্যা কোটালের মাথায় ভোজালির কোপ মারে তাঁরা। বাধা দিতে গেলে বেধড়ক মারা হয় শোভনকেও। তাঁর স্ত্রী ও দুই সন্তানের গলায় ছুরি ধরে ডাকাতদল। এরপর আলমারি থেকে ৫ ভরি সোনার গয়না ও ৫০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

Loading...

ঘটনাস্থলে যায় এগরা থানার পুলিশ। শোভন ও তাঁর পরিবারের দাবি, ডাকাতদল পালিয়ে যাওয়ার সময় বাইকের শব্দ শোনা যায়। এখানেই প্রশ্ন?

ডাকাতদলের খোঁজে পুলিশ

----------------------------

- তাহলে কি দুষ্কৃতীরা স্থানীয়?

- পরিকল্পনা করেই কি হানা?

- দূরে বাইক রেখে পায়ে হেঁটে আসে তারা?

আক্রান্ত গৃহকর্ত্রীকে এগরা হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। এগরা থানা থেকে সামান্য দূরত্বে এই ডাকাতির ঘটনায় শহরের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

First published: 03:46:36 PM Dec 17, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर