সাইকেলকে মোটর সাইকেল বানিয়ে তাক লাগালেন গুসকরার যুবক ! 

সাইকেলকে মোটর সাইকেল বানিয়ে তাক লাগালেন গুসকরার যুবক ! 

পুজোর ছুটিতে সাইকেলকে মোটর সাইকেল বানিয়ে এখন সকাল সন্ধে এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন গুসকরার প্রীতম মন্ডল।

  • Share this:

#বর্ধমান: ঘরে বসে নিজের সাইকেলে যন্ত্র লাগিয়ে তাকে মোটর সাইকেল করে তাক লাগিয়ে দিলেন গুসকরার যুবক । পুজোর ছুটিতে সাইকেলকে মোটর সাইকেল বানিয়ে এখন সকাল সন্ধে এলাকায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন গুসকরার  প্রীতম মন্ডল। ব্যাটারিতে একবার চার্জ দিলে শহরে পাক মারা এখন কোনও ব্যাপারই নয়। নামমাত্র খরচে সাইকেলকে মোটর সাইকেলে রূপান্তর ঘটিয়ে আত্মীয় পরিজন বন্ধু বান্ধবদের অবাক করে  দিয়েছেন তিনি।

পূর্ব বর্ধমানের গুসকরার যুবক প্রীতম মণ্ডল।  ব্লক অফিসের কর্মী তিনি। আইডিয়াটা মাথায় ঘুরছিল বেশ কিছু দিন ধরেই।  তাকে বাস্তব রূপ দিতে সোসাল মিডিয়ায় খোঁজ খবর নেন। পরিকল্পনা ছকে নেন নিজের মতো করে।  শুরু করেন  নিজের সাইকেল টিকে মোটর সাইকেলে পরিনত করার কাজ।

 পুজোর সময় কুড়ি দিন ছুটি ছিল। সেই ছুটির সময়টাকে কাজে লাগান। অনলাইনে কেনেন ছোট লিথিয়ামান ব্যাটারি । বর্ধমানের একটি দোকান থেকে কেনেন প্রয়োজনীয় টুকিটাকি যন্ত্রাংশ। তৈরি করতে লেগেছে মোটর, ব্যাটারি, কন্ট্রোলার, ব্রেক, লাইট, ইণ্ডিকেটর।সবই  তারের মাধ্যমে সংযুক্ত করেন। তাতেই কেল্লাফতে। মাত্র ১৩ হাজার টাকায় বানিয়ে ফেলেছেন ব্যাটারি চালিত মোটর সাইকেল।

প্রীতম বললেন, এখন ব্যাটারির দাম আরও  অনেক কমে গিয়েছে। তার ফলে এখন খরচ আরও কম হবে। দশ এমপ্লিফায়ার ব্যাটারি ব্যবহার করে প্রায় কুড়ি কিলোমিটার যাওয়া যাচ্ছে। বেশি এমপ্লিফায়ার ব্যাটারি ব্যবহার করলে আরও বেশি দূরত্ব অতিক্রম করা যাবে। ব্যাটারি নিয়মিত চার্জ দেওয়া যাবে। এখন একবার চার্জ দিলে কুড়ি কিলোমিটার ঘোরা যাচ্ছে।

বেশি দাম দিয়ে ছোট ব্যাটারি লাগিয়েছেন প্রীতম। তাতে ব্যাটারির ওজন কমেছে। বেড়েছে সৌন্দর্য্য। অফিস যাতায়াত তো বটেই, এখন নিজের তৈরি মোটর সাইকেল নিয়ে সকাল সন্ধে গুসকরা শহরে ঘুরছেন প্রীতম। তাঁকে দেখে অনেকেই নিজের সাইকেলকে মোটর সাইকেলের রূপ দেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করছেন।

সাইকেলে আর অনবরত প্যাডেল করার প্রয়োজন নেই। শুধু হ্যান্ডেল ধরে এগিয়ে গেলেই হতো। এই সাইকেলে ব্রেক, লাইট সবই মোটর সাইকেলের মতোই।

Saradindu Ghosh

First published: February 8, 2020, 9:24 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर