corona virus btn
corona virus btn
Loading

এই জেলায় এখন কন্টেইনমেন্ট জোন পাঁচটি, আক্রান্ত এগারো বাসিন্দা

এই জেলায় এখন কন্টেইনমেন্ট জোন পাঁচটি, আক্রান্ত এগারো বাসিন্দা

এখন পূর্ব বর্ধমান জেলায় কন্টেইনমেন্ট জোন কটি রয়েছে জানেন কি? এই জেলায় এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তই বা কতজন বাসিন্দা? জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, সোমবার বিকেল পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলার এগারো জন বাসিন্দা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

  • Share this:

#বর্ধমান: এখন পূর্ব বর্ধমান জেলায় কন্টেইনমেন্ট জোন কটি রয়েছে জানেন কি? এই জেলায় এখন পর্যন্ত করোনায়  আক্রান্তই বা কতজন বাসিন্দা? জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, সোমবার বিকেল পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলার এগারো জন বাসিন্দা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তার মধ্যে খণ্ডঘোষের গোপীনাথপুরের  এক পুলিশের গাড়ি চালক কলকাতায় করোনা আক্রান্ত হন। সেখানেই তাঁর চিকিৎসা চলছে।  মুম্বই থেকে ফেরার পথে আসানসোলে আউসগ্রামে এক মহিলা ও তার ছেলের দেহে করোনার সংক্রমণ মেলে। সেখান থেকেই দুর্গাপুরের সনকা হাসপাতালে তাদের ভর্তি করা হয়েছে। মেমারির পাহাড়হাটির এক মহিলা করোনায় আক্রান্ত হয়ে কলকাতায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বাকিরা জেলাতেই করোনায় আক্রান্ত হন।

তাঁদের মধ্যে চার জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। একুশ দিনের মধ্যে নতুন করে কেউ করোনায় আক্রান্ত না হওয়ায় খন্ডঘোষের বাদুলিয়া থেকে কন্টেইনমেন্ট জোন উঠে গিয়েছে। তবে নতুন করে দুটি কন্টেইনমেন্ট জোন বেড়েছে । বর্ধমান শহরের সুভাষপল্লী, মেমারির সোমেশ্বর তলার পাশাপাশি কন্টেইনমেন্ট জোন ছিল কেতুগ্রামের রতনপুর এলাকায়। তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আউশগ্রাম ও পূর্বস্থলীর একটি করে কন্টেইনমেন্ট জোন। আউশগ্রামের উক্তা অঞ্চলের গঙ্গা রামপুর রবিবার থেকে কন্টেইনমেন্ট জোন হয়েছে। এই এলাকার এক যুবক ডায়ালিসিস নিতে নিয়মিত বোলপুরের সিয়ান হাসপাতালে যান। সেখানেই তার করোনা ধরা পড়ে। তবে তিনি কার মাধ্যমে আক্রান্ত হলেন তা এখনও জানা যায়নি। সেকারণে উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য দফতর। পূর্বস্থলীর হামিদপুরে মুম্বাই থেকে ফেরা এক যুবক করোনা আক্রান্ত হওয়ায় সেই এলাকাকেও কন্টেইনমেন্ট জোন হিসেবে ঘোষনা করা হয়েছে। সব মিলিয়ে খন্ডঘোষের বাদুলিয়ায় কন্টেইনমেন্ট জোন উঠলেও জেলার আরও পাঁচ প্রান্তে কন্টেইনমেন্ট জোন রয়েছে।কন্টেইনমেন্ট জোনগুলিতে পুলিশি বিধিনিষেধ কঠোর করা হয়েছে। ওই এলাকার বাসিন্দাদের ঘরের বাইরে বেরতে নিষেধ করা হয়েছে। রেশন সহ সব দোকান পাট বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। গাড়ি চলাচল, গাড়ি পার্কিং সম্পূর্ণ ভাবে নিষিদ্ধ। সংক্রমণ ঠেকাতেই এই উদ্যোগ বলে জেলা পুলিশ জানিয়েছে।
Published by: Akash Misra
First published: May 18, 2020, 6:32 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर