দক্ষিণবঙ্গ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনার জেরে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ চিকিৎসাকেন্দ্র, প্রতিবাদে পথ অবরোধে শামিল বাসিন্দারা

করোনার জেরে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ চিকিৎসাকেন্দ্র, প্রতিবাদে পথ অবরোধে শামিল বাসিন্দারা

চিকিৎসা পরিষেবা না পাওয়ার অভিযোগ তুলে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখালেন পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরের পাঁচড়া এলাকার বাসিন্দারা।

  • Share this:

#বর্ধমান: চিকিৎসা পরিষেবা না পাওয়ার অভিযোগ তুলে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখালেন পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরের পাঁচড়া এলাকার বাসিন্দারা। তাঁরা বলছেন, এলাকায় চিকিৎসার ন্যূনতম পরিকাঠামো নেই। সেইজন্য শরীর খারাপ হলে এলাকার বাসিন্দাদের দুশ্চিন্তার এক শেষ হতে হচ্ছে। অবিলম্বে এলাকায় উপযুক্ত চিকিৎসা পরিষেবার দাবি তুলে বুধবার রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। নির্বাচনী আবহে গ্রামবাসীদের অবরোধ আলাদা মাত্রা যোগ করেছে। পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদ সভাধিপতি শম্পা ধারা জানিয়েছেন, আইনি জটিলতায় ওই এলাকার চিকিৎসা কেন্দ্র চালু করা না গেলেও বাসিন্দারা যাতে উপযুক্ত পরিষেবা পান তা নিশ্চিত করতে বিকল্প ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

ঘটনা হল, পূর্ব বর্ধমান জেলার পাঁচড়া এলাকায় একটি দাতব্য চিকিৎসালয় রয়েছে। এলাকার বাসিন্দা থেকে শুরু করে আশপাশের বেশ কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দারা ওই সরকারি দাতব্য চিকিৎসা কেন্দ্র থেকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পরিষেবা পেতেন। গর্ভবতী মহিলা থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ জ্বর জ্বালা, কাটাছেঁড়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা পেতেন। সেখানে ডাক্তার আসতেন। ওষুধ তুলো ব্যান্ডেজ, প্রয়োজনীয় পরামর্শ মিলত। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ হয়ে রয়েছে সেই সরকারি দাতব্য চিকিৎসালয়। ডাক্তার আসেন না। তালা বন্ধ হয়ে রয়েছে চিকিৎসা কেন্দ্র। এর ফলে চিকিৎসকের পরামর্শ পেতে এলাকার বাসিন্দাদের খুবই সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে।

বাসিন্দারা বলছেন, এই সরকারি দাতব্য চিকিৎসালয় খোলার জন্য বারবার স্থানীয় পঞ্চায়েত থেকে শুরু করে জেলা পরিষদ, জেলা প্রশাসনের সব জায়গায় বহুবার আবেদন নিবেদন করা হয়েছে কিন্তু তাতে কাজের কাজ কিছুই হয়নি। বারে বারে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। কিন্তু চিকিৎসা কেন্দ্রের তালা খোলার কোনও সম্ভাবনা তৈরি হয়নি। তাতেই ক্ষুব্ধ হয়ে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করতেই এই পথ অবরোধ।

এলাকায় অবিলম্বে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা পরিকাঠামো তৈরি দাবিতে এদিন পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরের পাঁচড়ার চৌবেড়িয়া মোড় এলাকায় মেমারি তারকেশ্বর রাস্তা অবরোধ করেন বাসিন্দারা দীর্ঘক্ষন অবরোধের ফলে এই গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীরা।

এলাকার বাসিন্দারা বলছেন, জামালপুরের পাঁচড়ার হৈমবতী দাতব্য চিকিৎসালয়ের ওপর এলাকার অন্তত পনেরোটি গ্রামের পঞ্চাশ থেকে ষাট হাজার বাসিন্দা নির্ভরশীল। অথচ এই সরকারি চিকিৎসা কেন্দ্রটি দীর্ঘদিন বন্ধ হয়ে পড়ে রয়েছে। ফলে এলাকার বাসিন্দাদের দূরের মেমারি স্বাস্থ্যকেন্দ্র কিংবা বর্ধমান মেডিক্যাল  কলেজ হাসপাতালে যেতে হচ্ছে। অনেক দরিদ্র বাসিন্দার পক্ষে দূরের হাসপাতালে যাওয়ার খরচ বহন করা সম্ভব হচ্ছে না। অনেক ক্ষেত্রে চিকিৎসা শুরুতে দেরি হওয়ায় রোগীর মৃত্যুও ঘটেছে।

তাই অবিলম্বে সর্বক্ষণ ডাক্তার থাকা নিশ্চিত করে কমপক্ষে দুই শয্যার ইন্ডোর-সহ এই চিকিৎসা কেন্দ্র চালু করার দাবি তুলে পথ অবরোধ করেন স্থানীয়রা। তাদের বক্তব্য, দিন দিন চিকিৎসা কেন্দ্রের উন্নয়ন হওয়ার কথা। আধুনিক যন্ত্রাংশ আসার কথা। লোক সংখ্যা বৃদ্ধির কথা মাথায় রেখে সেখানে ডাক্তার, নার্স-সহ পরিকাঠামো বাড়ানো হবে এমনটাই হওয়া উচিত। অথচ দেখা গেল, এখানের চিকিৎসা কেন্দ্র বন্ধ করে দিয়ে ডাক্তার তুলে নেওয়া হল। তাহলে এলাকার বাসিন্দারা চিকিৎসা পরিষেবা পাবে কিভাবে? বারবার প্রশাসনকে জানিয়েও কোনও কাজ না হওয়ায় প্রশাসনের উর্ধ্বতন আধিকারিক ও রাজ্য সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য এলাকার সব গ্রামের বাসিন্দারা শামিল হয়ে এই পথ অবরোধ অংশ নিয়েছেন।

পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধারা জানান, দাতব্য সেন্টারটি জেলা পরিষদের নিয়ন্ত্রণে ছিল। সেটি একটি প্রকল্পের আওতায় ছিল। কিন্ত সেই প্রকল্প এখন বন্ধ হয়ে গিয়েছে। সেজন্যই এই সমস্যা তৈরি হয়েছে। ওই এলাকার বাসিন্দাদের চিকিৎসার পরিষেবা পাওয়া নিশ্চিত করতে বিকল্প ব্যবস্থার কথা ভাবা হচ্ছে।

Saradindu Ghosh

Published by: Shubhagata Dey
First published: January 6, 2021, 7:59 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर