হেমন্তের পরশ গায়ে নিয়ে সোনালী ধান উঠছে ভাঁড়ারে, নবান্ন উৎসবে সেজে উঠেছে বর্ধমান

হেমন্তের পরশ গায়ে নিয়ে সোনালী ধান উঠছে ভাঁড়ারে, নবান্ন উৎসবে সেজে উঠেছে বর্ধমান
  • Share this:

Saradindu Ghosh

#বর্ধমান: হেমন্তের হিমের পরশ গায়ে মেখে নবান্ন উত্সবে মাতলো রাজ্যের শস্যভান্ডার বর্ধমান। সোনা রঙের ধান মাঠ থেকে ঘরে তোলার কাজ চলছে জোর কদমে। সেই ধান থেকে চাল তৈরি করে নিবেদন করা হয় মা লক্ষ্মীকে। তৈরি হয় নতুন চালের নানান খাবার। সেই নবান্ন উত্সবকে ঘিরে এখন উত্সবমুখর পূর্ব বর্ধমান জেলা।

এমনিতেই বাঙালির বারো মাসে তের পার্ব্বন। তার ওপর শীত মানেই তো উত্সবের মরশুম। ঋতু বৈচিত্র্যের হাত ধরে শীতের আগে আসে হেমন্ত। সেই হেমন্তে কৃষি ভিত্তিক পূর্ব বর্ধমান জেলার ঐতিহ্যবাহী প্রাচীন লোক উত্সব নবান্ন। এবার ধানের ফলন হয়েছে ভালই। তার জেরে জৌলুস বেড়েছে নবান্নের আয়োজনে।

NABANNA 05

রাজ্যের তো বটেই, দেশের সবচেয়ে বেশি ধান উত্পাদক জেলার অন্যতম পূর্ব বর্ধমান। এই জেলায় এই অগ্রহায়ন মাসে আমন ধান ঘরে তোলার সময় পালিত হয় নবান্ন। ধান ঢেঁকিতে ভেঙে তৈরি হয় চাল। সেই নতুন চাল, আখ, খেঁজুর, কলা, কমলালেবু, নলেন গুড়ে মেখে সর্ব প্রথম মা লক্ষ্মীকে নিবেদন করা হয়। সেই পুজো উপলক্ষে বাড়িতে আসেন আত্মীয় পরিজনরা। রসনায় জল আনা নানান পদ আকর্ষন বাড়ায় উত্সবের।

এবার অনাবৃষ্টির কারণে প্রথমে ধান রুইতেই পারেননি কৃষকরা। কাঙ্খিত বৃষ্টি পেতে দেরি হয়েছিল অনেকটাই। তাই ফলন কেমন হবে তা নিয়ে চিন্তিত ছিলেন বাসিন্দারা। কিন্তু দেরী হলেও ফলন হয়েছে সন্তোষজনক।

ধান কাটার আগে সুন্দর ভাবে নিকোনো হয়েছে উঠোন। বাড়ির দেওয়ালে আলপনা একেঁছেন মহিলারা। মাঠ থেকে সোনা রঙের ধানে উঠোন ভরে উঠতেই শুরু হয়েছে নবান্ন উত্সব।

NABANNA 02

বর্ধমানের অধিষ্ঠাত্রী দেবী সর্বমঙ্গলা। লক্ষ্মীরূপিনী মা সর্বমঙ্গলাকে রাঢ়বঙ্গের দেবী বলা হয়। তাই বর্ধমান-সহ রাঢ়বঙ্গের বাসিন্দাদের অনেকেই প্রথম সর্বমঙ্গলা মন্দিরে নবান্ন উত্সব পালন করেন। রবিবার সকাল থেকেই অগণিত ভক্ত ভিড় করেছিলেন মন্দিরে। নতুন চাল, ফুলকপি, বাঁধাকপি সহ নানান ফল তাঁরা দেবীকে নিবেদন করেন। অনেকেই মন্দিরে অন্নভোগ খেয়ে পুজো করা নতুন চাল নিয়ে বাড়ি যান। এরপর নতুন চালে তৈরি হবে নলেন গুড়ের পায়েস, পিঠে পুলি।

নবান্ন উপলক্ষে বর্ধমানের অনেক গ্রামেই মেলা, যাত্রার আসর বসে।

First published: 05:19:33 PM Dec 01, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर