• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • DUE TO WATER LOGGING IN BURDWAN BRIDGE COLLAPSED PEOPLE CANNOT COMMUTE FROM ONE PLACE TO OTHER PBD

ডুবেছে সেতু, শ্মশান! টানা বর্ষণে খড়ি নদীর জলে প্লাবিত বর্ধমানের বিস্তীর্ণ এলাকা

গ্রামবাসীদের ভরসা একমাত্র শ্মশানটিও জলে প্লাবিত।

গ্রামবাসীদের ভরসা একমাত্র শ্মশানটিও জলে প্লাবিত।

  • Share this:

#বর্ধমান: সাত দিনের বৃষ্টিতে খড়ির নদীর জলে প্লাবিত বর্ধমানের বিস্তীর্ন এলাকা। ভেসে গিয়েছে কাঠের সেতু ও শ্মশান (Bridge collapse due to rain)।যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন দুই ব্লকের। খড়ি নদীর জলে প্লাবিত  মন্তশ্বরের  শুশুনিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের সঙ্গে বর্ধমান ১নং ব্লকের যোগাযোগাকারী একমাত্র সেতুটি। কোমর পর্যন্ত জলে ঝুঁকি নিয়ে ব্রীজ পার হচ্ছেন স্থানীয়রা। এমনকি গ্রামবাসীদের ভরসা একমাত্র শ্মশানটিও জলে প্লাবিত (crematorium under water) ।

স্থানীয়দের অভিযোগ সেই বাম আমল থেকে কেবলই প্রতিশ্রুতির বন্যা বইয়ে দিয়েছেন নেতারা। বাদ যায়নি প্রশাসনিক কর্তারাও। সেই বাম আমল থেকেই প্রশাসনিক কর্তা থেকে রাজনৈতিক নেতারা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন – এবছর ঠিক হয়ে যাবে পাকা সেতু। না হয়নি। প্রথম দিকে ছিল বাঁশের সেতু। পরে তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় আসার পর বণ্ডুল ১নং গ্রাম পঞ্চায়েত তথা বর্ধমান ১নং পঞ্চায়েত সমিতির উদ্যোগে কাঠের সেতু করা হয়েছিল কয়েক লক্ষ টাকা খরচ করে। কিন্তু ২০১৫ সালের বন্যায় সেতুর অনেকগুলি কাঠ ভাসিয়ে নিয়ে চলে যায়। তারপর গ্রামবাসীদের উদ্যোগে এবং কিছুটা পঞ্চায়েতের সহযোগিতায় মেরামত করা হয় সেতুটিকে।  সেই একমাত্র যোগাযোগকারী সেতু খড়ি নদীর জলের তলায়। 

এই সেতু দিয়ে একদিকে যেমন মন্তেশ্বরের শুশুনিয়া পঞ্চায়েতের মানুষ বর্ধমান কৃষ্ণনগর রাস্তায় এসে ওঠেন। তেমনি বর্ধমান ১নং ব্লক ও বর্ধমান শহরের সঙ্গে যোগাযোগকারী এই সেতু দিয়েই এপারের লোকজন ওপারে যায়। এই সেতু না থাকলে ঘুরপথ প্রায় ১৫ কিমি যেতে হয়।

কার্যত এই সেতুকে করবে বর্ধমান ১নং ব্লক নাকি মন্তেশ্বর ব্লক এই দড়ি টানাটানির জেরে ভাগের মা গঙ্গা পায়না অবস্থার শিকার হয়ে চলেছেন গ্রামবাসীরা। তারা চাইছেন দ্রুত সমস্যার সমাধান।

সভাধিপতি শম্পা ধাড়া জানিয়েছেন সেতুটি জেলাপরিষদের। সেতুটি নির্মাণ নিয়ে পরিকল্পনাও  গ্রহণ করা হয়েছে।নিয়ম অনুযায়ী  জেলাপরিষদ যেহেতু ২৫ ফুটের বেশি কংক্রিট সেতু নির্মাণ করতে পারে না। তাই আই আর ডি এফের ফান্ডের মাধ্যমে সেতুটি যাতে তৈরি করা যায় তার পরিকল্পণা গ্রহণ করা হয়েছে।

Published by:Pooja Basu
First published: