সন্ধ্যা নামলেই তালা পড়বে রাজ্যে, সকাল হতেই রান্না ছেড়ে মদের দোকানে মহিলাদের লাইন

সন্ধ্যা নামলেই তালা পড়বে রাজ্যে, সকাল হতেই রান্না ছেড়ে মদের দোকানে মহিলাদের লাইন

দের দোকানের লাইন, সব ভিড়কে হার মানিয়ে গিয়েছে।

  • Share this:

#হাওড়াঃ সন্ধ্যা নামলেই তালা পড়বে রাজ্যে। জরুরি পরিষেবা আর অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ছাড়া মিলবে না কিছুই। তাই দশটা বাজতেই  রান্না ছেড়ে মদের দোকানের লাইন দিলেন বাড়ির মহিলারা।

বাড়িতে আলু-পেয়াঁজ মজুত করতে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের বাজারগুলিতে ভিড় জমিয়েছিলেন সাধারণ মানুষ। কিন্তু মদের দোকানের লাইন, সব ভিড়কে হার মানিয়ে গিয়েছে। অনেকেরই দাবি, চাল বা ডাল অথনবা কাঞ্চা সবজি আগামী কয়েকদিন বাজারে কমবেশি পাওয়া গেলেও মোদের দোকান খোলা পাওয়া যাবে না।  তাই বাড়িতে থাকতে হলে তা মজুত করে রাখতেই হবে। তাই শুধু বাড়ির পুরুষ সদস্যরা নয়, আব্রু সরিয়ে মোদের দোকানে লাইন দিলেন বাড়ির মহিলারা। পেটি সমেত মোদের বোতল নিয়ে কেউ টোটো আবার কেউ ভ্যানে করে ফিরলেন বাড়ি।

সোমবার সকাল থেকে হাওড়ার প্রায় সবকটি মোদের দোকানে কম করে ৫০ জনের লাইন চোখে পড়েছে। বেশ কয়েকটি দোকানে সেই সংখ্যা চারিয়ে যায় ৩০০। এমনকি, আনেক জায়গাতেই ভিড় সামলাতে পুলিশকে আসরে নামতে হয়। মাছ ডিম থেকে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের পাশাপাশি মদের এরূপ চাহিদা দেখে তাজ্জব অনেকেই। সাধারণ মানুষ থেকে অনেক সমাজের বিশিষ্ট মানুষের দাবি, ভাত ডালের  পাশাপাশি মদও নাকি অত্যাবশ্যক হয়ে উঠেছে। ক্রেতাদের কেউ কেউ বলছেন, বাড়িতে থাকতে হবে তাই সময় কাটাতেই যোগান রেখে দেওয়া, কেউ আবার বলছেন মদই একমাত্র করোনার প্রতিষেধক তাই বেশি করে কিনে রাখছি।

First published: March 23, 2020, 6:22 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर