বর্ধমানে খুন চিকিৎসকের স্ত্রী, রহস্যের সমাধানে তদন্তে পুলিশ

বর্ধমানে খুন চিকিৎসকের স্ত্রী, রহস্যের সমাধানে তদন্তে পুলিশ
বর্ধমানে খুন চিকিৎসকের স্ত্রী

চালককে জুয়ার টাকা না দেওয়াতেই খুন হতে হয়েছে চিকিৎসকের স্ত্রীকে। দাবি চিকিৎসক সুব্রত নাগের।

  • Share this:

#বর্ধমান: বর্ধমানে চালকের হাতে চিকিৎসকের স্ত্রীর খুনের ঘটনায় নয়া তথ্য। চালককে জুয়ার টাকা না দেওয়াতেই খুন হতে হয়েছে চিকিৎসকের স্ত্রীকে। দাবি চিকিৎসক সুব্রত নাগের। তবে শুধু কি টাকার জন্যই খুন। নাকি এর পিছনে রয়েছে অন্য কোনও কারণ, খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

জুয়া খেলার নেশা ছিল চিকিৎসক সুব্রত নাগের গাড়ির চালক তপন দাসের। জুয়ায় হারলেই চিকিৎসক ও তাঁর স্ত্রীর ওপর হামলা চালাত সে। দুর্গাপুজোর সময়ও জুয়ায় হেরে চিকিৎসকের বাড়িতে হামলা চালায় তপন দাস, দাবি চিকিৎসকের। এতকিছুর পরও কেন চালককে চাকরি থেকে তাড়িয়ে দিলেন না চিকিৎসক। উঠছে প্রশ্ন।

-২০ বছরের চাকরিতে একাধিক বার চিকিৎসকের বাড়িতে হামলা

-এতবার বার হামলার পরেও ক্ষমা চেয়েই চাকরিতে বহাল তপন

-কীভাবে এত প্রশয় পেল চালক তপন দাস ?

-শুধুই কি জুয়ার টাকা না দেওয়াতে খুন ?

-নাকি খুনের পিছনে রয়েছে অন্য কোনও কারণ ?

দুর্গাপুজোর পর বাড়ির কাছেই বর্ধমান থানায় এফআইআর দায়ের করেন চিকিৎসক সুব্রত নাগ। তাতে অবশ্য বিশেষ সুরাহা হয়নি। চিকিৎসক ও তাঁর স্ত্রীর কাছে ক্ষমা চেয়ে ফের কাজে যোগ দেন চালক তপন দাস।

খুন করার পরও ভাবলেশহীন চালক তপন দাস। জেল থেকে বেরিয়ে চিকিৎসকেও মারার হুমকি দিয়েছে সে। ঘটনার পর থেকেই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন চিকিৎসক সুব্রত নাগ। সবদিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে জেলা পুলিশ। পরীক্ষা করা হচ্ছে চিকিৎসকের স্ত্রীর মোবাইল ফোন।

First published: 11:07:59 PM Oct 29, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर