corona virus btn
corona virus btn
Loading

রাস্তায় দাঁড়িয়ে রোগী দেখছেন চিকিৎসক! মনোবল বাড়ছে সাধারণের

রাস্তায় দাঁড়িয়ে রোগী দেখছেন চিকিৎসক! মনোবল বাড়ছে সাধারণের

প্রতিদিন কখনও রাস্তায় আবার কখনও স্থানীয় এলাকায় দুঃস্থদের খাদ্য দ্ৰব্য পৌঁছতে গিয়ে সেখানেই দেখছেন রোগী৷ চিকিৎসার জন্য নিচ্ছেন না কোনও অর্থও |

  • Share this:

#হাওড়া: রাস্তায় দাঁড়িয়ে রোগী দেখছেন চিকিৎসক ! অবাক হচ্ছেন ? অবাক হওয়ার কিছু নেই৷ হাওড়ার ড্রেনেজ ক্যানেল রোডে মাঝে মাঝে করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচাতে  বিশেষ পোশাক পরে রাস্তায় ঘুরে অসুস্থ রোগীদের চিকিৎসা করছেন হাওড়ার বিশিষ্ট অস্থি বিশেষজ্ঞ ডাঃ সুহায় কুন্ডু | হাওড়ার ড্রেনেজ ক্যানেল রোডের ধারে সুজয় বাবুর নিজস্ব চেম্বার রয়েছে, কিন্তু করোনার প্রভাবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চেম্বার নিয়ে অনেক সমস্যা তৈরি হচ্ছিলো | রোজ আপৎকালীন সমস্যা নিয়ে আসা রোগীদের সুশ্রষা করতে তো হবে৷

একদিকে হাওড়া হাসপাতাল বন্ধ হয়ে গিয়েছে৷ হাসপাতালের সুপার করোনায়  আক্রান্ত হওয়ার পর হাসপাতাল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় জেলা প্রশাসনের তরফে | তার পর থেকেই সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা ব্যবস্থা প্রায় বন্ধ হয়ে যায় | অন্যদিকে জেলার প্রাইভেট চিকিৎসা কেন্দ্রগুলিও অনেক অংশে বন্ধ হয়ে গিয়েছে৷ বেশ কিছু চিকিৎসকও বন্ধ করে দিয়েছেন রোগী দেখা | সবদিক থেকে হাওড়ার চিকিৎসা ব্যবস্থা বেশ কিছুটা নড়বড়ে হয়ে পড়েছে বলেই এভাবে রাস্তায় নেমে চিকিৎসা শুরু করলেন  চিকিৎসক সুজয় বাবু ৷

একদিকে এলাকার দুস্থ দিন আনা দিন খাওয়া মানুষগুলোর অন্যের যোগানের সঙ্গেসঙ্গে রোগীরা এলেও তাকে ফেরাচ্ছেন না৷ রাস্তায় নেমেই শুরু করছেন চিকিৎসা৷ তার দাবি করোনা আতঙ্কে অনেক চিকিৎসকই বয়েস বেড়ে যাওয়ার কারণে রোগী দেখা বন্ধ করেছেন৷ পাছে তিনিও আক্রান্ত হয়ে যান করোনায় | মানুষের সংস্পর্শে এই রোগ ছড়ানোর আশঙ্কা বেশি হাওয়াই অনেকই ভয়ে বন্ধ করেছেন পরিষেবা দেওয়া | এই কথা মাথায় রেখেই সব রকম নিরাপত্তা নিয়ে চিকিৎসা করে চলেছেন সুজয়বাবু৷

প্রতিদিন কখনও রাস্তায় আবার কখনও স্থানীয় এলাকায়  দুঃস্থদের খাদ্য দ্ৰব্য পৌঁছতে গিয়ে সেখানেই দেখছেন রোগী৷ চিকিৎসার জন্য নিচ্ছেন না কোনও অর্থও | একদিকে লকডাউনের জেরে বন্ধ হয়েছে কাজ কর্ম তার পর চিকিৎসার জন্য অর্থ খরচ সেই চিন্তা করতে পারছেন না অনেকেই৷ তাই কে টাকা দিলো কি না দিলো তা নিয়ে ভাবার সময় নাই সুজয় বাবুর৷ এমন সময় চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়াটাই খুব প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি৷ সব রকম নিরাপত্তা নিয়ে চিকিৎসা করলে ভয়ের কিছু নাই বলে দাবি করেছেন চিকিৎসক৷ তার দাবি করোনা হাসপাতাল গুলিতে তার বন্ধু সহকর্মী  চিকিৎসকরা দিন রাত এক করে লড়াই করছেন৷ তাদের পশে এই ভাবেই দাঁড়াতে চান তিনি৷ এলাকার ডাক্তার বাবুর এই মানবিক মুখ দেখে অনেকেই খুশি৷ তাদের মতে এই সময় এমন ডাক্তার থাকায় তাদের মনোবল বেড়েছে৷

Published by: Pooja Basu
First published: April 21, 2020, 12:08 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर