সঠিক সময়ে হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়ার আর্জি, বদলে জুটল পুলিশের মার

অপরাধ বলতে নিজের কর্মস্থলে সঠিক সময়ে পৌঁছানোর জন্য কর্তব্যরত পুলিশের সাহায্য চেয়েছিলেন সরকারি চিকিৎসক ৷

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 02, 2017 05:10 PM IST
সঠিক সময়ে হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়ার আর্জি, বদলে জুটল পুলিশের মার
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 02, 2017 05:10 PM IST

#বাঁকুড়া: অপরাধ বলতে নিজের কর্মস্থলে সঠিক সময়ে পৌঁছানোর জন্য কর্তব্যরত পুলিশের সাহায্য চেয়েছিলেন সরকারি চিকিৎসক ৷ তাতেই কপালে জুটল প্রহার ৷

যানজট কাটিয়ে দ্রুত হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়ার অনুরোধ করায় এবার খোদ পুলিশের হাতে আক্রান্ত সরকারি চিকিৎসক ৷ চিকিৎসককে ব্যাপক মারধরের অভিযোগ উঠল খোদ আইনরক্ষকের বিরুদ্ধে । ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়া সদর থানা এলাকায় ৷

অভিযোগ, সঠিক সময়ে হাসপাতালে পৌঁছতে পুলিশের কাছে সাহায্য চেয়েছিলেন ৷ আর তাতেই কর্তব্যরত পুলিশ কর্মী মেজাজ হারিয়ে প্রথমে গালি গালাজ ও পরে চিকিৎসককে একাধিক বার ঘুসি মারেন । পুলিশের মারে জখম হন বাঁকুড়ার অমরকানন গ্রামীণ হাসপাতালের চিকিৎসক সৈকত গড়াই ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজের বাড়ি ওন্দা থেকে নিজের গাড়িতে ৬০ নম্বর জাতীয় সড়ক ধরে অমরকানন গ্রামীণ হাসপাতালে কাজে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন চিকিৎসক সৈকত গরাই । সেসময় ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কে ব্যপক যানজট ছিল । চিকিৎসকের গাড়ি বাঁকুড়া সদর থানার দেরুয়া মোড়ের কাছে পোঁছাতেই যানজটের মধ্যে পড়ে ।

ওই চিকিৎসক নিজের পরিচয় দিয়ে সেসময় রাস্তায় কর্তব্যরত পুলিশ কর্মীকে তাঁর গাড়ি পার করে দেওয়ার অনুরোধ জানান । অভিযোগ, এরপরই কর্তব্যরত পুলিশ কর্মী ওই চিকিৎসককে গালি গালাজ করতে শুরু করেন । বিষয়টির প্রতিবাদ জানাতেই ওই পুলিশ কর্মী রাগে খাপ্পা হয়ে প্রকাশ্যেই চিকিৎসকের উপর চড়াও হয়ে তাঁর মুখে ও পেটে যথেচ্ছ ঘুষি মারেন ।

ঘটনায় জখম চিকিৎসক পরে নিজের কর্মস্থল অমরকানন গ্রামীণ হাসপাতালে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা করান । এই ঘটনায় দোষী পুলিশ কর্মীকে চিহ্নিত করে দ্রুত তাঁর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন ওই চিকিৎসক । পুলিশের এই মেজাজ হারানোর ঘটনার কড়া নিন্দা করেছেন অমরকানন গ্রামীণ হাসপাতালের বি এম ও এইচ । বাঁকুড়ার পুলিশ সুপার সুখেন্দু হীরা বলেন , ‘বিষয়টি আমার জানা নেই । অভিযোগ পেলে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে ।’

First published: 05:10:11 PM Feb 02, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर