• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • Kali Puja in Barasat: বারাসতে কালীপুজো দেখতে যাবেন, পুলিশি নিয়ম-কানুন জানেন তো?

Kali Puja in Barasat: বারাসতে কালীপুজো দেখতে যাবেন, পুলিশি নিয়ম-কানুন জানেন তো?

কালীপুজোয় বিধিনিষেধ

কালীপুজোয় বিধিনিষেধ

Kali Puja in Barasat: বারাসতের পুজো কমিটিগুলিকে আগেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল জেলা পুলিশের তরফ থেকে, সমস্ত রকম বিধিনিষেধ মানতে হবে।

  • Share this:

    #বারাসত: উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতে কালীপুজো উপলক্ষে লক্ষ-লক্ষ মানুষের সমাগম হয় বারাসাত শহর জুড়ে। হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে এবার পুজো মণ্ডপগুলিকে করোনা পরিস্থিতির সবরকম ব্যবস্থা রাখতে হবে। বুধবার সাতসকালে বারাসত জেলা পুলিশ সুপার রাজনারায়ণ মুখোপাধ্যায় সহ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিশ্ব চাঁদ ঠাকুর এবং পুলিশের অন্যান্য কর্তারা মণ্ডপে মণ্ডপে গিয়ে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখলেন।

    পুজো কমিটিগুলিকে আগেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল জেলা পুলিশের তরফ থেকে, সমস্ত রকম বিধিনিষেধ মানতে হবে। সেই ব্যবস্থা কেমন করা হয়েছে, তা আজ খতিয়ে দেখেন জেলা পুলিশ সুপারসহ অন্যান্য পুলিশ আধিকারিকরা। বারাসত পুলিশ সুপার রাজনারায়ণ মুখোপাধ্যায় বলেন, ''আমরা বেরিয়েছি কোর্টের যে নির্দেশ আছে করোনা বিধি নিয়ে, তা মানা হচ্ছে কিনা দেখতে। পুজো নিশ্চয় করতে হবে, কিন্তু যাতে বেশি সংখ্যক লোকের ভিড় না হয় তা খতিয়ে দেখতেই আজ আমরা পুজোমণ্ডপগুলিতে যাচ্ছি।''

    আরও পড়ুন: আনুষ্ঠানিক বিচ্ছেদ সাঙ্গ, শেষমেশ 'হৃদয়ের' কাছে 'প্রাক্তন' হলেন বাবুল সুপ্রিয়!

    প্রসঙ্গত, এবার বারাসত ও মধ্যমগ্রামের অধিকাংশ কালীপুজোর উদ্বোধন হবে আগামী ৩ নভেম্বর। আর সেই সূত্রে ৭ নভেম্বর রাত বারোটার পর থেকেই সমস্ত পুজো মণ্ডপের আলো বন্ধ করে দিতে হবে। অধিকাংশ পুজো কমিটির সদস্যরাই জানাচ্ছেন, কোভিডবিধি মেনেই পুজোর আয়োজন করা হচ্ছে। গতবার না হলেও এবার মণ্ডপগুলিতে আলোকসজ্জা করা হবে বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

    আরও পড়ুন: হঠাৎই BSF ক্যাম্পে হাজির দিলীপ-সুকান্ত! 'অভিসন্ধি' নিয়ে মারাত্মক অভিযোগ TMC-র

    করোনা কালে মানুষের যাবতীয় যন্ত্রণা মিটে মা কালীর আগমনের মাধ্যমেই সকলে আনন্দে ফিরবে, এটাই প্রার্থনা পুজো কমিটিগুলির। আবার অনেক পুজো কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, কালীপুজোর খরচ থেকে বাঁচানো টাকা খরচ করা হবে কর্মহীন ও ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের জন্য। বারাসতের বড় বড় ক্লাবগুলো এই মহৎ উদ্যোগে সামিল হচ্ছে।

    আরও পড়ুন: ৪১ বছরের জীবন-সঙ্গী চলে গেলেন, 'অনুপ্রেরণা' হারিয়ে শোকস্তব্ধ CPIM নেতা অশোক ভট্টাচার্য

    বারাসতের কালী পুজোর প্যান্ডেল,প্রতিমা ও আলোকসজ্জার অভিনবত্ব এবং ঐতিহ্য সর্বজনবিদিত। ফলে শুধু এই জেলা নয় অন্য জেলা, রাজ্য এমনকী বাংলাদেশ, নেপাল থেকেও দর্শকরা আসেন কালী পুজোর প্যান্ডেল দেখতে। করোনা সংক্রমণের প্রতিরোধে এবারও সেই লক্ষ লক্ষ মানুষের ভিড় এড়াতে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই সমস্ত পুজো মণ্ডপ গুলি উৎসব পালন করবে এমনটাই পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। শুধু পুজো কমিটি নয়, মানুষের স্বার্থে এগিয়ে আসতে হবে সাধারণ দর্শকদেরও।

    Published by:Suman Biswas
    First published: