তাকের উপর কাপড়ে মোড়া শিশুকন্যার পচাগলা দেহ, ঘরের মধ্যে নির্বিকার দম্পতি!

সদ্যজাত শিশু কন্যার পচাগলা দেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল উত্তর ২৪ পরগণার বনগাঁ ঠাকুরপল্লী এলাকায়।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 25, 2019 04:01 PM IST
তাকের উপর কাপড়ে মোড়া শিশুকন্যার পচাগলা দেহ, ঘরের মধ্যে নির্বিকার দম্পতি!
প্রতীকী চিত্র ৷
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 25, 2019 04:01 PM IST

#বনগাঁ: বনগাঁয় সদ্যজাত শিশুকন্যার পচাগলা দেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য।

সদ্যজাত শিশু কন্যার পচাগলা দেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল উত্তর ২৪ পরগণার বনগাঁ ঠাকুরপল্লী এলাকায়। বৃহস্পতি সকালে দুর্গন্ধ পেয়ে পুলিশকে ফোন করে জানান স্থানীয় বাসিন্দারা l পুলিশ গিয়ে ঘরের মধ্যে তাকের উপর থেকে শিশুকন্যার পচাগলা দেহ উদ্ধার করে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বনগাঁ ঠাকুরপল্লীর সুবোধ বিশ্বাসের বাড়িতে গত সাত মাস ধরে ভাড়া ছিল মনীষা ও দীপঙ্কর সরকার নামে এক দম্পতি। তাঁরা প্রথম দিন থেকে এলাকাবাসীকে জানিয়েছিল মনীষার পেটে টিউমর হয়েছে। দিন দিন পেট বাড়াতে থাকায় কৌতুহল ছড়াতে থাকে এলাকার মানুষদের মধ্যে। গত সোমবার সকালে হঠাৎ এই বাড়ি থেকে মনীষার আর্তনাদ শুনতে পান এলাকার লোকজন । তাঁদের অভিযোগ, একটি বাচ্চার কান্নাও শুনতে পায় তাঁরা। তবে বাচ্চাকে দেখতে প্রতিবেশীরা গেলে ওই দম্পতি সকলকে জানান তাঁদের কোনও বাচ্চা হয়নি। মনীষার টিউমর ফেটে গিয়েছে। এতেই সন্দেহ বাড়ে এলাকাবাসীর।

পরবর্তীতে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে ওই দিন কোনও কিছুই খুঁজে পায়নি। আজ বৃহস্পতিবার বাড়ির ভেতর থেকে পচা গন্ধ পেয়ে এলাকাবাসী ফের পুলিশকে ফোন করে। পুলিশ গিয়ে ঘরের উপর থেকে (আড়া) কাপড়ে মোড়া একটি পচা-গলা শিশুকন্যার দেহ উদ্ধার করে। যা নিয়ে চঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। এলাকাবাসীর অভিযোগ ওই মহিলা এবং তার স্বামী শিশুকন্যাটিকে মেরে ঘরের উপরে রেখে দিয়েছিল। মনীষাকে আটক করে তদন্ত শুরু করেছে বনগাঁ থানার পুলিশ l

First published: 03:57:48 PM Jul 25, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर