Home /News /south-bengal /
Dilip Ghosh: বাংলা নয়, কেন ভিন রাজ্যের দায়িত্বে তিনি? নিজেই জানিয়ে দিলেন দিলীপ ঘোষ!

Dilip Ghosh: বাংলা নয়, কেন ভিন রাজ্যের দায়িত্বে তিনি? নিজেই জানিয়ে দিলেন দিলীপ ঘোষ!

দিলীপ ঘোষ যা বললেন...

দিলীপ ঘোষ যা বললেন...

Dilip Ghosh: এদিনও তৃণমূলের বিরুদ্ধে তুমুল আক্রমণ শানিয়েছেন তিনি। বাংলায় দুষ্কৃতীরাজ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, ''দুষ্কৃতী আর পুলিশ আলাদা নয়। পুলিশই সবথেকে বড় দুষ্কৃতী হয়ে গেছে। মানুষ পুলিশের কাছে যেতে ভয় পায়।''

  • Share this:

    #রানাঘাট: আট রাজ্যের দায়িত্ব পেয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। ফলে বাংলার বাইরেই এখন সংগঠনের কাজে বেশি মনোনিবেশ করবেন তিনি। আর বাংলার দায়িত্ব সামলাবেন সুকান্ত মজুমদার, শুভেন্দু অধিকারীরা। এই পরিস্থিতি কিছুটা হলেও বিড়ম্বনায় পড়েছেন দিলীপবাবু। যদিও নতুন দায়িত্বও পেলেন তিনি। একইসঙ্গে দলের অন্দরেই তাঁর বিরোধী শিবিরের উদ্দেশ্যে চ্যালেঞ্জের সুরে দিলীপ বলেছেন, ''তাঁদের ইচ্ছা পূর্ণ হয়েছে। আমি তো বাংলার দায়িত্বে নেই। এবার পার্টিটাকে জিতিয়ে দেখান। ৪০ শতাংশ ভোট পেয়ে দেখান। ৪০ শতাংশ ভোট পেয়ে দেখালে ওঁদের কথা মেনে নেব। না হলে ভাবব ওঁরাই সেটিং করেছেন তৃণমূলের সঙ্গে বিজেপিকে ড্যামেজ করতে।'' কিন্তু সাফল্যের পরও কেন বাংলার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হল তাঁকে? রবিবার নদিয়ার রানাঘাটে মনকি বাত অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে দিলীপবাবু বলেন, ''যাদের অভিজ্ঞতা আছে তাদেরই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। কঠিন রাজ্যে আমাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।''

    তবে, এদিনও তৃণমূলের বিরুদ্ধে তুমুল আক্রমণ শানিয়েছেন তিনি। বাংলায় দুষ্কৃতীরাজ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, ''দুষ্কৃতী আর পুলিশ আলাদা নয়। পুলিশই সবথেকে বড় দুষ্কৃতী হয়ে গেছে। মানুষ পুলিশের কাছে যেতে ভয় পায়। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে দুষ্কৃতী এবং পুলিশ একসঙ্গে মিলে আমাদের মনোনয়ন জমা দিতে দেয়নি। পুলিশের দ্বারা দুষ্কৃতী দমন সম্ভব নয়।''

    আরও পড়ুন: গাছের মধ্যে ঢুকে গেল আস্ত বাস, মুহূর্তে রক্তে লাল চারদিক, বাংলাদেশে মৃত্যুমিছিল

    অন্যদিকে এসএসসির দুর্নীতি নিয়ে যাদবপুরে বিজেপির প্রতিবাদী মিছিলের পর বিজেপি নেতাদের নামে পুলিশের সুয়োমোটো কেস করা প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, ''অন্যায় হবে, বিরোধিতা করলে কেস খেতে হবে। প্রতিবাদ করতে গেলে মারও খেতে হবে। জেলেও যেতে হবে। গণতন্ত্রের নাম নিশান নেই পশ্চিমবঙ্গে। বিরোধীদের কোনো সম্মান নেই। সাধারণ মানুষের কথা শোনার জন্য কেউ নেই।''

    আরও পড়ুন: একটু আগে দেখেছিলেন সকলে, ফ্ল্যাটে ঢুকেই সব শেষ করলেন বাগুইআটির ব্যক্তি! নেপথ্যে স্ত্রী?

    অপরদিকে, চ্যান্সেলর পদ থেকে রাজ্যপালকে সরানোর সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, ''আসলে এরা কোনো নিয়ম-নীতি, সংবিধান মানতে রাজি নয়। তারা যে অনৈতিক কাজ করছেন, তার বিরোধিতা করলে বিরোধীদের মারধর করা হচ্ছে। কেস দেওয়া হচ্ছে। ছিলেন গভর্নর, তাঁকে সরিয়ে দিয়ে নিষ্কণ্টক করা হচ্ছে। সম্পূর্ণ ভাবে ক্ষমতাকে কুক্ষিগত করে, একনায়কতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।''

    Published by:Suman Biswas
    First published:

    Tags: Bengal BJP, Dilip Ghosh

    পরবর্তী খবর