দেউচা পাঁচামিতে কয়লা খনি প্রকল্প, মুখ্যমন্ত্রী সরাসরি কথা বলুন চাইছেন এলাকার আদিবাসীরা

দেউচা পাঁচামিতে কয়লা খনি প্রকল্প, মুখ্যমন্ত্রী সরাসরি কথা বলুন চাইছেন এলাকার আদিবাসীরা

মুখ্যমন্ত্রী অবশ্য শুরুতেই জানিয়েছেন, স্থানীয়দের আস্থা অর্জন করার পরেই প্রকল্পের কাজ শুরু হবে।

  • Share this:

#বীরভূম: বীরভূমে দেউচা পাঁচামি কয়লাখনি প্রকল্প। প্রকল্প এলাকার বেশিরভাগই আদিবাসী। তাঁদের দাবি, পুনর্বাসন প্যাকেজ নিয়ে তাঁদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলুন মুখ্যমন্ত্রী। যাতে কোনও ভুল বোঝাবুঝি না হয়। মুখ্যমন্ত্রী অবশ্য শুরুতেই জানিয়েছেন, স্থানীয়দের আস্থা অর্জন করার পরেই প্রকল্পের কাজ শুরু হবে।

বিরোধী থাকাকালীন সিঙ্গুরে জমি অধিগ্রহণ বিরোধী আন্দোলন ছিল তাঁর অস্ত্র। সেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলেই বীরভূমে দেশের বৃহত্তম কয়লা খনি প্রকল্পের ছাড়পত্র পেয়েছে রাজ্য। এই প্রকল্পের জন্য প্রচুর জমি দরকার। মুখ্যমন্ত্রী শুরুতেই জানিয়ে দিয়েছেন, পুনর্বাসন নিশ্চিত করেই প্রকল্পের কাজ শুরু করা হবে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘আদিবাসী ও স্থানীয় মানুষ থাকেন। তাঁদের পুনর্বাসন দেওয়াই অগ্রাধিকার। প্রজেক্টের কাজ শুরুর আগে সেখানকার মানুষের সঙ্গে কথা বলব। তাঁদের পাশে থাকার বার্তা দেব। তাঁদের সম্মতি নিয়েই কাজ শুরু হবে।’’

শিল্পের জন্য সবার আগে দরকার জমি। আর দেউচা-পাঁচামির এই কয়লা খনি প্রকল্প বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম। জমি অধিগ্রহণ নিয়ে সমস্যার জেরে এ দেশের নানা প্রান্তেই বহু প্রকল্প ধাক্কা খেয়েছে। দেউচা-পাঁচামি নিয়ে অবশ্য মুখ্যমন্ত্রী আশ্বাস দিয়েছেন, স্থানীয়দের আস্থা অর্জন করেই এগোনো হবে। এ নিয়ে কী বলছেন স্থানীয়রা?

দেওয়ানগঞ্জের আদাবিসীদের দাবি, পুনর্বাসন, ক্ষতিপূরণ, কর্মসংস্থানের বিষয় নিয়ে এলাকাবাসীর সঙ্গে বৈঠক করুক সরকার।

দেউচা-পাঁচামির আদিবাসীদের দাবি, তাঁরাও চান শিল্প হোক। কিন্তু, তাঁদের অন্ধকারে রেখে যেন কিছু না হয়।

First published: 07:46:29 PM Sep 14, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर