corona virus btn
corona virus btn
Loading

ডেঙ্গিতে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে রোজ, জ্বরে এরাজ্যে মৃত্যু আরও ৫ জনের !

ডেঙ্গিতে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে রোজ, জ্বরে এরাজ্যে মৃত্যু আরও ৫ জনের !
Representational Image
  • Share this:

#দেগঙ্গা: রাজ্যে জ্বরে মৃত্যু আরও পাঁচজনের। উত্তর চব্বিশ পরগনার দেগঙ্গায় ডেঙ্গিতে মৃত্যু হয়েছে অন্তঃসত্ত্বা রত্না দাসের। জ্বরে মৃত্যু হয়েছে আরও তিন জনের। রানিগঞ্জ এলাকায় জ্বরে মৃত্যু হয়েছে এক কিশোরীর।

ডেঙ্গি জ্বরে মৃত্যু অব্যাহত। উত্তর চব্বিশ পরগনার দেগঙ্গায় এবার ডেঙ্গিতে মৃত্যু হল এক অন্তঃসত্ত্বার। চাকলার সুবর্ণপুর দাসপাড়ার বাসিন্দা রত্না দাস বেশ কিছুদিন ধরেই জ্বরে ভুগছিলেন। রক্ত পরীক্ষায় ডেঙ্গির জীবাণু মেলার পর তাকে আর জি কর হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করা হয়। সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর।

দেগঙ্গারই আমুলিয়া পঞ্চায়েত এলাকায় জ্বরে মৃত্যু হয়েছে মারিয়া বিবি নামে এক মহিলার। গত চার দিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন তিনি। স্থানীয় চিকিৎসকই তাঁর চিকিৎসা করছিলেন। অবস্থার অবনতি হওয়ায় মারিয়া বিবিকে বারাসত হাসপাতালে নিয়ে আসা হচ্ছিল। পথেই তাঁর মৃত্যু হয়।

উত্তর চব্বিশ পরগনার চাপাতলা গ্রাম পঞ্চায়েতের কেয়াডাঙার বাসিন্দা চল্লিশ বছরের রমজান আলি সাত দিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন। দু’দিন আগে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে আর জি কর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর।

চার দিন ধরে জ্বরে ভোগার পর সোমবার ভোররাতে মারা যান হাবড়া পুরসভা এলাকার বাসিন্দা হাজিয়া বিবি নামে এক বৃদ্ধা। হাবড়া হাসপাতালেই চিকিৎসা চলছিল তাঁর। অবস্থার অবনতি হওয়ায় বারাসতের একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়েছিল তাঁকে। সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর।

আসানসোল জেলা হাসপাতালে জ্বরে মৃত্যু হয়েছে মুসকান খাতুন নামে এক কিশোরীর। মৃতের পরিবারের দুই সদস্যও জ্বরে আক্রান্ত। জ্বরে মৃত্যুর ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে স্থানীয়দের মধ্যে। বিজ্ঞান মঞ্চের সহযোগিতায় এলাকায় খোলা হয়েছে সচেতনতা শিবির। ডেঙ্গি - জ্বর মোকাবিলায় তৎপর হয়েছে প্রশাসনও। কিন্তু তবুও বেড়েই চলেছে মৃতের সংখ্যা।

First published: October 30, 2017, 5:07 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर