• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • মোবাইল নিয়ে মায়ের সঙ্গে বচসা, আত্মঘাতী কিশোরী !

মোবাইল নিয়ে মায়ের সঙ্গে বচসা, আত্মঘাতী কিশোরী !

মেয়ে বায়না ধরেছিল একটি দামী মোবাইল ফোনের। কিন্তু নুন আনতে পান্তা ফুরোনো পরিবারের পক্ষে তা কিনে দেওয়া সম্ভব হয়নি।

মেয়ে বায়না ধরেছিল একটি দামী মোবাইল ফোনের। কিন্তু নুন আনতে পান্তা ফুরোনো পরিবারের পক্ষে তা কিনে দেওয়া সম্ভব হয়নি।

মেয়ে বায়না ধরেছিল একটি দামী মোবাইল ফোনের। কিন্তু নুন আনতে পান্তা ফুরোনো পরিবারের পক্ষে তা কিনে দেওয়া সম্ভব হয়নি।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #বাসন্তী: মেয়ে বায়না ধরেছিল একটি দামী মোবাইল ফোনের। কিন্তু নুন আনতে পান্তা ফুরোনো পরিবারের পক্ষে তা কিনে দেওয়া সম্ভব হয়নি। কেন মা বা বাবা তাকে মোবাইল কিনে দিচ্ছে না, তা নিয়েই মায়ের সঙ্গে বচসা বাঁধে বছর ষোলোর ওই কিশোরীর। মা, মেয়েকে একটু শাসনও করেছিলেন। কিন্তু তবুও সেই ঘটনার জেরে বিষ খেয়ে আত্মঘাতী হল পল্লবী নস্কর(১৬) নামে এক কিশোরী।

    দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তী থানার ৬ নম্বর সোনাখালির ঘটনা। সোমবার ভোররাতে বিষ খেয়ে আত্মঘাতী হয় পল্লবী। সে একাদশ শ্রেণীতে পড়াশোনা করত। বাবা বিশ্বজিৎ নস্কর পেশায় চাষি। মা মনি নস্কর সাধারন গৃহবধূ। যে পরিবারে দু’বেলা দু’মুঠো ভাত-তরকারি জোগাড় করাই দায়, তাদের পক্ষে মোবাইল ফোন তো বিলাসিতা। তাই সেটা মেয়েকে কিনে দেওয়াও তাদের পক্ষে সম্ভব হয়নি ৷

    পল্লবী অবশ্য বেশ কিছুদিন ধরে এই ফোনের জন্য বায়না ধরেছিল। অবশেষে সোমবার রাতে মায়ের সঙ্গে বচসা হয় তার। রাগে মা হাত ও তোলেন মেয়ের গায়ে। এরপর এদিন সকালে নিজের ঘরে মৃত অবস্থায় উদ্ধার হয় পল্লবীর দেহ। পল্লবীর মৃত্যুর পর বাড়ির লোকেরা মৃতদেহ দাহ করতে নিয়ে যায় শ্মশানে। কিন্তু খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় বাসন্তী থানার পুলিশ। পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে প্রথমে বাসন্তী ব্লক প্রাথমিক হাসপাতাল ও পরে ময়না তদন্তের জন্য পাঠায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বাসন্তী থানার পুলিশ। তবে পল্লবীর মৃত্যুতে এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

    First published: