মৃত্যুর এক বছর পর কবর থেকে তোলা হল মরদেহ ! কিন্তু কেন?

১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ মুর্শিদাবাদের ভরতপুরের খরিন্দা দেচাপড়া গ্রামে মৃত্যু হয় মিরাজ শেখ নামে স্থানীয় এক বাসিন্দার। স্ত্রীর দাবি ছিল, অসুস্থ হয়ে মৃত্যু হয় মিরাজের।

১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ মুর্শিদাবাদের ভরতপুরের খরিন্দা দেচাপড়া গ্রামে মৃত্যু হয় মিরাজ শেখ নামে স্থানীয় এক বাসিন্দার। স্ত্রীর দাবি ছিল, অসুস্থ হয়ে মৃত্যু হয় মিরাজের।

  • Share this:

    #মুর্শিদাবাদ: মৃত্যুর এক বছর দু'মাস পর ছেলেকে খুনের অভিযোগ করলেন মা। আদালতের নির্দেশে কবর থেকে তোলা মরদেহ। মুর্শিদাবাদের ভরতপুর থানার খরিন্দা দেচাপড়া গ্রামের ঘটনা। ভরতপুর থানায় পুত্রবধূ-সহ সাতজনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন মা। ছেলের মৃত্যুর পর ময়নাতদন্ত না করে কবর দিয়ে দেওয়ার অভিযোগ।

    ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ মুর্শিদাবাদের ভরতপুরের খরিন্দা দেচাপড়া গ্রামে মৃত্যু হয় মিরাজ শেখ নামে স্থানীয় এক বাসিন্দার। স্ত্রীর দাবি ছিল, অসুস্থ হয়ে মৃত্যু হয় মিরাজের।

    ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৯এক বছর পর ভরতপুর থানায় পূত্রবধূ-সহ সাতজনের বিরুদ্ধে ছেলেকে খুনের অভিযোগ করেন মিরাজের মা হারিসা খাতুন। সতের বছর আগে মিরাজের সঙ্গে বিয়ে হয় তহমিনা খাতুনের। অভিযোগ, কয়েক বছর পর থেকেই মিরাজের উপর শুরু হয় শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার ।। হারিসা খাতুনের দাবি, -প্রতিবেশী যুবকের সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক ছিল তহমিনা খাতুনের -মিরাজের সঙ্গে এই নিয়ে নিত্য অশান্তি চলত -এছাড়াও সম্পত্তি নিজের নামে লিখিয়ে নিতে মিরাজকে চাপ দিত তহমিনা -২০১৮ সালের ১৭-ই ডিসেম্বরও জমি ও সম্পত্তি নিয়ে দুজনের অশান্তি হয়

    পরদিনই মৃত্যু হয় মিরাজ শেখের। অভিযোগ, ময়নাতদন্ত না করেই কবর দেওয়া হয় মিরাজকে।

    প্রশ্ন উঠছে, কেন মৃত্যুর একবছর পর খুনের অভিযোগ? মায়ের দাবি, এতদিন ভয়ে মুখ খোলেননি। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published: