corona virus btn
corona virus btn
Loading

আমফানের ক্ষত শুকোয়নি এখনও, ভেঙে গিয়েছে কংক্রিটের বাঁধ, মাটি দিয়ে বাঁধ মেরামতি সেচ দফতরের

আমফানের ক্ষত শুকোয়নি এখনও, ভেঙে গিয়েছে কংক্রিটের বাঁধ, মাটি দিয়ে বাঁধ মেরামতি সেচ দফতরের

ভরা বর্ষায় উন্মত্ত মাতলার জল কী আটকাতে পরবে মাটির বাঁধ? প্রশ্ন সুন্দরবনের দেউলবাড়ির।

  • Share this:

#সুন্দরবন: আমফানের ক্ষত শুকোয়নি এখনও। ছন্নছাড়া গ্রাম, ততোধিক শতছিন্ন নদী বাঁধের শরীর জুড়ে গভীর অসুখ। কংক্রিটের বাঁধ ধুয়েমুছে সাফ। মাটির বাঁধ তৈরি করে অবস্থা সামাল দেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে সেচ দফতর। কিন্তু ভরা বর্ষায় উন্মত্ত মাতলার জল কী আটকাতে পরবে মাটির বাঁধ? প্রশ্ন সুন্দরবনের দেউলবাড়ির।

আমফানের ক্ষত এখনও দগদগে। শরীর-মনে ধ্বংসের স্মৃতি। ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় সুন্দরবনের জীবনটাই ওলটপালট করে দিয়ে গিয়েছে। তার মধ্যেই চলে এসেছে বর্ষা। শুরু হয়ে গেছে বৃষ্টি। উথালপাতাল মাতলা। পাগলপারা ঢেউ ধাক্কা মারছে মাটির বাঁধে। বুক কেঁপে উঠছে কুলতলির দেউলবাড়ির বাসিন্দাদের।

আমফানে ভেঙে গেছে কয়েক কিলোমিটার লম্বা নদী বাঁধ। মাটি দিয়ে বাঁধ মেরামতির কাজ শুরুর মধ্যেই শুরু হয়ে গেছে বর্ষা। কংক্রিটের বাঁধ না হলে , অ্ঝোর বৃষ্টিতে ফের বানভাসি হওয়ার আশঙ্কায় ঘুম উড়েছে নদী পাড়ের বাসিন্দাদের।

ভরা বর্ষায় মাতলা ফের মাতাল। তার রোষ কী আটকাতে পারবে মাটির বাঁধ? প্রশ্নে দিশাহারা দেউলবাড়ি। অনিশ্চিত জীবন। ততোধিক অনিশ্চিত জীবিকা। কুলতলি জানে সব হারানোর মানে। মাটির নড়বড়ে বাঁধে জীবন আঁকড়ে বাঁচে দেউলবাড়ি।

Published by: Elina Datta
First published: June 29, 2020, 9:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर