দক্ষিণবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

আছড়ে পড়তে চলেছে সাইক্লোন আমফান, দুপুর থেকে ব্যাপক ঝড় বৃষ্টি পূর্ব বর্ধমানে

আছড়ে পড়তে চলেছে সাইক্লোন আমফান, দুপুর থেকে ব্যাপক ঝড় বৃষ্টি পূর্ব বর্ধমানে

পরিস্থিতি মোকাবিলায় জন্য কন্ট্রোল রুম খুলেছে জেলার বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তর। কন্ট্রোল রুমের নম্বর ০৩৪২-২৬৬৫০৯২।

  • Share this:

#বর্ধমান: আমফানের জেরে পূর্ব বর্ধমান জেলায় দুপুরের পর থেকে ঝোড়ো হাওয়ার দাপট শুরু হয়েছে। সেই সঙ্গে জেলাজুড়ে শুরু হয়েছে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি। ঝড়ের গতিবেগ এবং বৃষ্টির পরিমাণ দুই বাড়বে বলে আশঙ্কা করছে জেলা প্রশাসন। বাসিন্দাদের আগামী কাল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত ঘর থেকে না বেরোবার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। ঝোড়ো হাওয়া শুরু হতেই বিদ্যুৎ পরিষেবা বন্ধ হয়ে গিয়েছে অনেক এলাকায়। ঝড়ে ফসলের ব্যাপক ক্ষতির আশংকা করছেন জেলার কৃষকরা।

এদিন সকাল থেকেই জেলা পুলিশ সুপারকে সঙ্গে নিয়ে নিজের অফিসে জেলার পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছেন জেলাশাসক বিজয় ভারতী। বিডিও ও জেলা পর্যায়ের আধিকারিকদের সঙ্গে সর্বক্ষণ যোগাযোগ রেখে চলেছেন জেলা শাসক। পরিস্থিতি মোকাবিলায় জন্য কন্ট্রোল রুম খুলেছে জেলার বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তর। কন্ট্রোল রুমের নম্বর ০৩৪২-২৬৬৫০৯২। সর্বক্ষণ এই কন্ট্রোল রুম খোলা রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এদিন সকাল থেকেই রাস্তায় লোক চলাচল ছিল অন্যান্য দিনের তুলনায় অনেকটাই কম।বেলা বারোটার পর এদিন রাস্তা একেবারেই ফাঁকা হয়ে যায়। জেলা প্রশাসনের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, এখন কাঁচা বাড়ির সংখ্যা অনেকটাই কম। তবে পুরনো দুর্বল বাড়ি ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে।সেই সব বাড়ির বাসিন্দাদের সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। এছাড়াও গাছ ভেঙে রাস্তা অবরুদ্ধ হওয়া বা বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। তেমন কিছু হলে দ্রুত পরিস্থিতি সামাল দিতে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মী আধিকারিকরা প্রস্তুত রয়েছেন। টানা বৃষ্টিতে বর্ধমান শহরের নিচু এলাকাগুলিতে জল জমতে শুরু করেছে। বৃষ্টির পরিমাণ বাড়লে বেশ কিছু এলাকা জলবন্দি হয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন বাসিন্দারা। পৌরসভা কর্তৃপক্ষ অবশ্য জানিয়েছে, বেশিরভাগ নিকাশি নালা সংস্কার করা হয়েছে। তাই আগের মত জল জমার কথা নয়। তবুও কোন এলাকায় জল দাঁড়িয়ে গেলে তা যাতে দ্রুত সরানো যায় তার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

Saradindu Ghosh

Published by: Ananya Chakraborty
First published: May 20, 2020, 4:18 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर