ভাইরাসের গুজব, বর্ধমানে মুরগির মাংস এড়িয়ে চলছেন অনেকেই

ভাইরাসের গুজব, বর্ধমানে মুরগির মাংস এড়িয়ে চলছেন অনেকেই

সোশ্যাল মিডিয়ায় দ্রুত ভাইরাল হচ্ছে চিকেন থেকে ভাইরাস ছড়ানোর গুজব

  • Share this:

#বর্ধমান: বর্ধমানের কয়েকটি ডে বোর্ডিং ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে মধ্যাহ্ণ ভোজে চিকেন দেওয়া বন্ধ। কিছু স্কুলে মাঝেমধ্যে মিড ডে মিলে চিকেন দেওয়া হত। সেখানেও আপাতত তা বন্ধ। অনেক পরিবারই আপাতত চিকেন এড়িয়েই চলছে। অনেক বিয়েবাড়িও রাতারাতি ক্যাটারারকে ফোন করে চিকেন পদ বাতিল করছে। কারণ, ভাইরাস আতঙ্ক। সোশ্যাল মিডিয়ায় দ্রুত ভাইরাল হচ্ছে চিকেন থেকে ভাইরাস ছড়ানোর গুজব। তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে বর্ধমানে কমছে মুরগির মাংস বিক্রি। করোনা থেকে মরফিন। সবই মারণ ভাইরাসের নাম। মুরগি থেকেই নাকি ছড়াচ্ছে সেইসব। সোশ্যাল মিডিয়াজুড়ে রটছে তেমনটাই। রুগ্ন মুরগির ছবি। তার সঙ্গে কয়েক লাইনের সতর্ক বার্তা ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপে-সহ সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে। সে সবে বোঝান হচ্ছে মুরগির মাংস মুখে তুলেছেন কী সপরিবারে ? এই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হবেন আপনি। সেসব পড়ে চিকেন খাওয়া তো দূরের কথা দোকান দেখলে উলটো মুখে হাঁটছেন ক্রেতারা। অনেকেই বলছেন, বাইরের রাজ্য থেকে আসা মুরগির গাড়িতে স্প্রে করার ছবি দেখেছি। তাই মুরগি থেকে যে ভাইরাস ছড়াবে না সে নিশ্চয়তা কোথায়! কেউ কেউ বলছেন, মুরগিকে ওষুধ খাবার খাইয়ে অল্প দিনে যেভাবে বাড়িয়ে তোলা হচ্ছে তা কতটা স্বাস্থ্য সম্মত তা ভাবার সময় এসেছে। সব মিলিয়ে, আপাতত মুরগির মাংস এড়িয়ে চলছেন অনেকেই। বেশিরভাগ হেঁসেলেই এখন তার প্রবেশ নিষেধ।

ক্যাটারিং ব্যবসার সঙ্গে যুক্তরা বলছেন, বিয়েবাড়ির মেনুতে মাটন, চিংড়ি থাকলেও চিকেন থাকেই। চিকেন তন্দুরি, চিকেন ভরতা, চিকেন পকোড়া বা চিকেন ফ্রাই মেনুতে রেখেছিলেন অনেকেই। তাঁরা এখন শেষ মুহূর্তে চিকেন আইটেম বাতিল করছেন। নিমন্ত্রিতরা এড়িয়ে যাবেন এই আশংকা থেকেই পিছু হঠছেন তাঁরা। হঠাৎ করে বিক্রি কমে যাওয়ার চিন্তিত বিক্রেতারা। বিয়ের মরশুমের চাহিদার সঙ্গে দাম বাড়ে। এখন যেন তার উলটপুরাণ চলছে। বিক্রি কমেছে হোটেল রেস্তরাঁতেও। চিলি চিকেন থেকে চিকেন বিরিয়ানি, চিকেন তন্দুরি- সযত্নে এড়িয়ে যাচ্ছেন অনেকেই।

Saradindu Ghosh

First published: February 28, 2020, 10:37 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर