করোনা আতঙ্ক! বন্ধ হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের শ্রেষ্ঠ এই ঐতিহাসিক স্থানের দরজাও

করোনা আতঙ্ক! বন্ধ হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের  শ্রেষ্ঠ এই ঐতিহাসিক স্থানের দরজাও
হাজারদুয়ারির দরজাও বন্ধ হল। নিজস্ব চিত্র

আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার অধীনে ঐতিহাসিক শহর মুর্শিদাবাদ জেলায় প্রায় দশটি স্মৃতিসৌধ রয়েছে, করোনা আতঙ্কের জেরে সেই সমস্ত স্মৃতিসৌধ গুলো বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে পর্যটকদের জন্য।

  • Share this:

করোনা আতঙ্কে এবার হাজারদুয়ারির দরজাও বন্ধ হল পর্যটকদের জন্য। মঙ্গলবার থেকে পর্যটকদের  জন্য অনির্দিষ্টকাল হাজারদুয়ারি বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ভরা মরশুমে এই অজানা বিপদ ধেয়ে আসায় মাথায় হাত  স্থানীয় ব্যবসায়ীদের।হতাশ পর্যটকরাও।

আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার অধীনে ঐতিহাসিক শহর মুর্শিদাবাদ জেলায় প্রায় দশটি স্মৃতিসৌধ রয়েছে, করোনা আতঙ্কের জেরে সেই সমস্ত স্মৃতিসৌধ গুলো বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে পর্যটকদের জন্য। ঐতিহাসিক শহর মুর্শিদাবাদ জেলায় হাজারদুয়ারি দেখার জন্য রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে ছাড়াও দেশ-বিদেশের বহু পর্যটক এই স্মৃতিসৌধ দেখতে আসেন।

মঙ্গলবার সকালে হাজারদুয়ারি কতৃপক্ষ এক নোটিশে জানিয়ে দেওয়া হয়, অনির্দিষ্টকালের জন্য হাজারদুয়ারি বন্ধ থাকবে। শুধহাজারদুয়ারি দেখতে এসে পর্যটকরা ঘোড়ার গাড়িতে করে ঘুরে বেড়ান। সেই ঘোড়ার গাড়ির চালকেরা হাজারদুয়ারির দরজা বন্ধ হয়ে যাওয়ার খবর শুনে যথেষ্টই হতাশ। হাজারদুয়ারি কে কেন্দ্র করে হোটেল ব্যবসা থেকে সাধারণ  ব্যবসায়ীরাও পর্যন্ত ক্ষতির মুখে পড়বে বলে জানান ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক স্বপন চক্রবর্তী। তাঁর কথায়, পর্যটকদেরও উপরে লালবাগের ব্যবসায়ীরা নির্ভরশীল। করোনা আতঙ্কের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হলেও এই মানুষগুলো কথা ভাবা উচিত সরকারের। ঘোড়ার গাড়ি চালিয়ে দিনানিপাত করেন রুবেল  শেখ। বলেন, ঘোড়ার গাড়ি পর্যটকদের ওপরই নির্ভরশীল। হাজারদুয়ারি বন্ধ হয়ে যাওয়াই আর কোন পর্যটক আসবে না। আমাদের সংসার চালানোই অসুবিধার মধ্যে পড়ে গেল। লালবাগ পুরসভার পুরপিতা বিপ্লব চক্রবর্তী বলেন, 'করোনা নিয়ে সারা বিশ্ব উদ্বিগ্ন। হাজারদুয়ারি বন্ধ করা হয়েছে সাবধানতা অবলম্বন করার জন্য। বৃহত্তর স্বার্থের কথা ভেবে মেনে নিতেই হবে সকলকে।'

First published: March 17, 2020, 6:06 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर