করোনা তাড়াতে দুর্গাপুরে হোমযজ্ঞ করলেন ৪ পুরোহিত

করোনা তাড়াতে দুর্গাপুরে হোমযজ্ঞ করলেন ৪ পুরোহিত

ঈশ্বরই নাকি বিশ্বকে করোনা মুক্ত করবে! এমনই বিশ্বাস পুরোহিতের

  • Share this:

#দুর্গাপুর: ঈশ্বরই নাকি বিশ্বকে করোনা মুক্ত করবে! এমনই বিশ্বাস পুরোহিতের। বিশ্বকে করোনা মুক্ত করতে দিনভর অনুষ্ঠিত হল মহাযজ্ঞ। কাঠ জ্বালিয়ে ঘি পুড়িয়ে যজ্ঞ হল এলাকার বাসিন্দাদের উপস্থিতিতে। আহুতি দেওয়া হল এক হাজার বেল পাতা। দীর্ঘ ক্ষন গায়ে গা ঘেঁষে বসে সেই হোম ও মহাযজ্ঞ চাক্ষুষও করলেন অনেকেই। পুজোর শেষে বিলি করা হল মহাপ্রসাদও। না। এই দৃশ্য দেশের কোনও পিছিয়ে পড়া রাজ্যের প্রত্যন্ত গ্রামে নয়, এই হোমযজ্ঞ হল দুর্গাপুরে।

করোনা আতংক দিন দিন জাঁকিয়ে বসছে। ভিড় এড়িয়ে মুখে মাস্ক লাগিয়ে সাবধানে থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। বারে বারে সাবান জল দিয়ে হাত ধুয়ে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকতে বলা হচ্ছে। করোনা রুখতে রবিবার দেশজুড়ে জনতা কারফিউয়ের ডাক দিয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রবিবার সকাল সাতটা থেকে রাত নটা পর্যন্ত সবাইকে ঘরে থাকার আবেদন করা হয়েছে।

দুর্গাপুরের কোকওভেন থানা এলাকার বীরভানপুরে অগ্রণী ক্লাবের ব্যবস্থাপনায় ছিন্নমস্তা মন্দিরের সামনে এই হোম যজ্ঞের আয়োজন করা হয়। ক্লাবের এক কর্মকর্তা জানান, ইতিমধ্যেই বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আমাদের দেশেও সেই ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। তাই বিশ্বকে করোনা মুক্ত করতে এই হোম যজ্ঞের আয়োজন করা হয়েছে।

লাল কাপড় মাথায় বেঁধে লাল পোশাক পরে হোম যজ্ঞের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন মূল পুরোহিত। সঙ্গে ছিলেন আরও তিনজন। পুরোহিত কল্যাণ চট্টোপাধ্যায় বলেন, স্যানিটাইজার ও মাস্কের প্রয়োজন নেই। ঈশ্বরই বিশ্বকে করোনা মুক্ত করবেন। সকাল থেকেই এই হোম যজ্ঞকে ঘিরে এলাকায় আলোড়ন পড়ে গিয়েছিল। মন্দিরের গায়ে করোনা ভাইরাস দূর করতে হোম যজ্ঞের ফ্লেক্সও টাঙানো হয়। হোম ও মহাযজ্ঞ দেখতে ভিড়ও করেন অনেকে। তাদের মধ্যে মহিলা, শিশু, কিশোর, কিশোরীদের ভিড়ই ছিল বেশি। তবে কেউ কেউ মুখে মাস্ক লাগিয়ে হোম যজ্ঞ দেখতে এসেছিলেন।

ঘটনায় উদ্বিগ্ন চিকিৎসকরা। তাঁরা বলছেন, এখন এক জায়গায় ভিড় না করে ঘরে আলাদা আলাদা থাকাই উচিত। সেই সঙ্গে বারে বারে সাবান জলে হাত ধোয়া ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা গেলে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকানো সহজ হবে।

Saradindu Ghosh

First published: March 21, 2020, 10:24 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर