corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা মোকাবিলায় নার্সিংহোমেও আইসোলেশন ওয়ার্ড খোলার নির্দেশ 

করোনা মোকাবিলায় নার্সিংহোমেও আইসোলেশন ওয়ার্ড খোলার নির্দেশ 

বেসরকারি হাসপাতাল ও নার্সিংহোমগুলিকেও আইসোলেশন ওয়ার্ড প্রস্তুত করার নির্দেশ দিল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন।

  • Share this:

#বর্ধমান: ছড়িয়ে পড়ছে করোনা ভাইরাস। প্রয়োজন পড়তে পারে অনেক বেশি আইসোলেশন বেডের। তারই আগাম প্রস্তুতি সাড়লো পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। বেসরকারি হাসপাতাল ও নার্সিংহোমগুলিকেও আইসোলেশন ওয়ার্ড প্রস্তুত করার নির্দেশ দিল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। শুক্রবার বর্ধমানে জেলা শাসকের কনফারেন্স হলে নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষকে নিয়ে একটি জরুরি কালীন বৈঠক হয়। সেই বৈঠকে বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতাল ও নার্সিংহোমের মালিকরা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে জেলা স্বাস্থ্য দফতর ও জেলা প্রশাসনের আধিকারিকরাও হাজির ছিলেন। সেই বৈঠকেই নার্সিংহোম ও বেসরকারি হাসপাতালেগুলিকে করোনা প্রতিরোধে বিশেষ আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরির নির্দেশ দেওয়া হয়। পূর্ব বর্ধমানের জেলা শাসক বিজয় ভারতী জানান, জরুরি কালীন পরিস্থিতি মোকাবিলার কথা ভেবেই সব রকম প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। এমনিতে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কাটোয়া ও কালনা মহকুমা হাসপাতালে আইসোলেশন ওয়ার্ড খোলা হয়েছে। কিন্তু তা প্রয়োজনের তুলনায় কম হতে পারে। সেই পরিস্থিতি তৈরি হলে বেসরকারি হাসপাতাল, নার্সিংহোমকে কাজে লাগানো হবে। ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি নার্সিংহোম নিজেদের উদ্যোগে বিশেষ আইসোলেশন ওয়ার্ডের ব্যবস্থা করেছে। বাকিরাও তা করবে বলে সম্মতি দিয়েছে। জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক প্রণব কুমার রায় বলেন, নার্সিংহোমগুলি আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরি করবে। প্রয়োজনীয় যাবতীয় চিকিৎসা সরঞ্জাম আমরা তাদের সরবরাহ করবো। এজন্য নার্সিংহোমের ডাক্তার ও নার্সদের বিশেষ প্রশিক্ষণ, পোশাক দেওয়া হবে বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। নার্সিংহোম মালিকরা জানিয়েছেন, ১৩টি বেসরকারি হাসপাতাল বড় নার্সিংহোম সহ প্রায় চল্লিশটি নার্সিংহোমে কম করে পাঁচটি আইসোলেশন বেড থাকছে। সোমবার সি এম ও এইচ অফিসে প্রশিক্ষণ হবে। প্রতিদিনের রিপোর্ট স্বাস্থ্য দফতরে পাঠাতে বলা হয়েছে।

জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, শুধু আইসোলেশন বেডই নয়, প্রতিটি নার্সিংহোমের ডাক্তার নার্সদের তালিকা, ফোন নম্বর নিয়ে ডাটা বেস তৈরি রেখেছে জেলা প্রশাসন। প্রয়োজনে তাদেরও কাজে লাগানো হবে। সবাইকে প্রয়োজনে তৈরি থাকতে বল হয়েছে।

Saradindu Ghosh

Published by: Ananya Chakraborty
First published: March 20, 2020, 6:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर