Home /News /south-bengal /

Coronavirus in Purba Bardhaman : বর্ধমানের পাশাপাশি এ বার করোনার ঝোড়ো ব্যাটিং কালনা কাটোয়াতেও

Coronavirus in Purba Bardhaman : বর্ধমানের পাশাপাশি এ বার করোনার ঝোড়ো ব্যাটিং কালনা কাটোয়াতেও

সংক্রমণের রাশ টানতে প্রয়োজনে বিধিনিষেধ আরও কড়াকড়ি করা হবে

সংক্রমণের রাশ টানতে প্রয়োজনে বিধিনিষেধ আরও কড়াকড়ি করা হবে

সংক্রমণের রাশ টানতে প্রয়োজনে বিধিনিষেধ আরও কড়াকড়ি করা হবে (Coronavirus in Purba Bardhaman)

  • Share this:

কাটোয়া : পূর্ব বর্ধমান জেলায় শহর এলাকাগুলিতে করোনার আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েই চলেছে। এতদিন জেলার সদর শহর বর্ধমানে করোনার সংক্রমণ ব্যাপক আকার নিলেও অন্যান্য পুর শহরগুলিতে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল অনেক কম। কিন্তু এবার বর্ধমান শহরের পাশাপাশি অন্যান্য পুর শহরগুলিতেও ব্যাপকভাবে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে। সংক্রমণ হু হু করে বাড়ছে কাটোয়া, কালনা, মেমারি, গুসকরায়। এই ঘটনায় উদ্বিগ্ন জেলা প্রশাসন। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনার সংক্রমণ বাড়তে থাকায় শহরগুলিতে বিধিনিষেধ অনেক কড়াকড়ি করা হয়েছে। সংক্রমণের রাশ টানতে প্রয়োজনে বিধিনিষেধ আরও কড়াকড়ি করা হবে (Coronavirus in Purba Bardhaman)।

আরও পড়ুন : বাহারি রিকশতেই থাকা-খাওয়া, আরোহীর আসনে স্ত্রীকে বসিয়ে মহাদেবের যান চলল গঙ্গাসাগর

জেলার সদর শহর বর্ধমানে এখন প্রতিদিনই আক্রান্তের সংখ্যা ডাবল সেঞ্চুরি পার করছে। গত ২৪ ঘণ্টায় এই শহরে নতুন করে ২২০ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রতিদিনই কর্মসূত্রে বাসে ট্রেনে বহু মানুষ এই শহরে আসছেন। বাজার এলাকাগুলিতে ব্যাপক ভিড় হচ্ছে। তার থেকেই সংক্রমণ দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। বর্ধমান শহরের প্রায় সব এলাকাতেই করোনার সংক্রমণ বেড়ে চলেছে। ইতিমধ্যেই এই শহরের সাতটি এলাকাকে মাইক্রো কনটেইনমেন্ট জোন ঘোষণা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন : আকাশ মেঘলা, বৃষ্টি চলছে, আলু চাষ বাঁচানো নিয়ে সংশয়ে কৃষকরা

আরও পড়ুন : স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনে দুঃস্থ পরিবারদের মাঝে খাবার ও কম্বল বিতরণ

জেলার মন্দির শহর কালনাতেও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় গঙ্গাপাড়ের এই শহরে ২৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। কাটোয়া পৌরসভা এলাকায় গত ২৪ ঘণ্টায় ২৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন। গুসকরা পুরসভা এলাকায় নতুন করে কুড়ি জন আক্রান্ত হয়েছেন। দাঁইহাট পৌরসভা এলাকাতেও গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মেমারি পৌরসভা এলাকায় নতুন করে আট জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এ ইসব শহরগুলোতেই বিধিনিষেধ কড়াকড়ি করা হচ্ছে। প্রয়োজনে দোকান খোলা বন্ধের সময় সীমা আরও সংক্ষিপ্ত করা হবে বলে প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

জেলা প্রশাসনের এক আধিকারিক জানান, আক্রান্তদের চিহ্নিত করতে শহর এলাকাগুলিতে নমুনা পরীক্ষা বাড়ানোর জন্য স্বাস্থ্য দপ্তরকে বলা হয়েছে। অনেকেই এখন পরীক্ষা করাতে আসছেন।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published:

Tags: Coronavirus, COVID19, Purba bardhaman

পরবর্তী খবর