দক্ষিণবঙ্গ

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

ব্যাপক সংক্রমণ উদ্বেগ বাড়াচ্ছে, আলাদা শিবির করে নমুনা সংগ্রহের পরিকল্পনা বর্ধমান শহরে

ব্যাপক সংক্রমণ উদ্বেগ বাড়াচ্ছে, আলাদা শিবির করে নমুনা সংগ্রহের পরিকল্পনা বর্ধমান শহরে

ইতিমধ্যেই এই হাসপাতালের বেশ কয়েকজন চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাছাড়া জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বাসিন্দারা ওই হাসপাতাল চত্বরে হাসপাতালে ভিড় করছেন। তাই সংক্রমণের আশঙ্কায় হাসপাতাল চত্বর এখন এড়িয়ে চলতে চাইছেন অনেকেই।

  • Share this:

#বর্ধমান: শহরে উদ্বেগজনক ভাবে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। শুধুমাত্র জুলাই মাসেই এই শহরে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন শতাধিক পুরুষ মহিলা। মৃত্যু হয়েছে ৭ জনের। পরীক্ষা করালেই রিপোর্ট করোনা পজিটিভ মিলছে অনেকেরই। জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, বর্ধমান শহরে যত নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে তার ১৫ শতাংশেরই করোনা পজিটিভ রিপোর্ট মিলেছে। ব্যাপকভাবে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ায় এই শহরের বাসিন্দাদের করোনা পরীক্ষায় বাড়তি জোর দেওয়া হচ্ছে। এজন্য আলাদা নমুনা সংগ্রহ কেন্দ্র খোলার পরিকল্পনা নিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য দফতর।

আগামী শুক্রবার থেকে বর্ধমান শহরের সুকান্ত পল্লী এলাকায় লালারসের নমুনা সংগ্রহের জন্য শিবির করা হবে। স্বাস্থ্য দফতর প্রশাসনের কাছে এমনই প্রস্তাব পাঠিয়েছে। ওই শিবিরে শুধুমাত্র বর্ধমান শহর এলাকার বাসিন্দারা লালারসের নমুনা জমা দিতে পারবেন। করোনার উপসর্গ থাকলেও অনেকেই বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গিয়ে লালারসের নমুনা জমা দিতে অনীহা প্রকাশ করছেন। ইতিমধ্যেই এই হাসপাতালের বেশ কয়েকজন চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাছাড়া জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বাসিন্দারা ওই হাসপাতাল চত্বরে হাসপাতালে ভিড় করছেন। তাই সংক্রমণের আশঙ্কায়  হাসপাতাল চত্বর এখন এড়িয়ে চলতে চাইছেন অনেকেই।

স্বাস্থ্য দফতরের এক আধিকারিক জানান, শহরের এক প্রান্তে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নমুনা সংগ্রহ চলছে। অন্যপ্রান্তেও যাতে শিবির করে নমুনা সংগ্রহ করা যায় তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। সে জন্যই সুকান্তপল্লী এলাকাকে বেছে নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও বর্ধমান সংস্কৃতি লোকমঞ্চের কাছে শিবির গড়ে সরকারি কর্মীদের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। তবে সংক্রমণ যেভাবে ছড়াচ্ছে সেই অনুপাতে লালারসের নমুনা সংগ্রহ বা পরীক্ষা হচ্ছে না বলে অভিযোগ অনেকেরই। আবার যে সংখ্যক নমুনা সংগ্রহ হচ্ছে তা পরীক্ষার পরিকাঠামো নেই বর্ধমান মেডিকেল কলেজে। সব মিলিয়ে পরীক্ষা হচ্ছে অনেক ধীর গতিতে। ফলে করোনা আক্রান্তদের চিহ্নিত করার কাজে ঘাটতি থেকেই যাচ্ছে। জেলাস্তরে পরীক্ষা পরিকাঠামো আরও বাড়ানো প্রয়োজন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

Published by: Pooja Basu
First published: July 29, 2020, 6:37 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर