করোনা ভাইরাস আতঙ্ক: চিনে গিয়ে আটকে বাঙালি গবেষক, কবে বাড়ি ফিরবেন জানা নেই

করোনা ভাইরাস আতঙ্ক: চিনে গিয়ে আটকে বাঙালি গবেষক, কবে বাড়ি ফিরবেন জানা নেই
Photo Courtesy: Reuters

ইউহানে ২৫০-৩০০ ভারতীয় ছাত্র আক্রান্ত। হুবেই প্রদেশে সেই সংখ্যাটা হাজারের কাছাকাছি।

  • Share this:
#কলকাতা: করোনার কাঁটা। চিনে গবেষণা করতে গিয়ে হোটেলবন্দি বাঙালি গবেষক। আতঙ্কে কাটছে প্রতি মুহূর্ত। সারাক্ষণ মুখে মাস্ক পরেও মিলছে না উদ্বেগ থেকে মুক্তি। গবেষণার কাজে চিনে গিয়ে আটকে পড়েছেন বাঙালি গবেষক কাজি আরিফ ইসলাম ৷ সেই ইউহান শহর, যেখানে করোনা আতঙ্ক চরমে। হুবেই প্রদেশের এই শহরেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। গোটা শহর তালাবন্দি। তাই ঘুরতে বেড়িয়ে আর শহরে ঢুকতে পারছেন না সিউড়ির বাঙালি গবেষক। কয়েকদিন ধরে হোটেলেই বন্দি। সিউড়ির বাসিন্দা কাজি আরিফ ইসলাম ৷ গত নভেম্বরে গবেষণার কাজে চিনে যান তিনি ৷ হুবেই প্রদেশের ইউহান শহরের বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা করেন কাজি আরিফ ইসলাম ৷ তিনি জানিয়েছেন, হোটেলে বন্দি থাকা অবস্থাতেই ২-৩ বার করে মেডিক্যাল টিম এসে হেলথ চেক আপ করছে। ইউহানে ২৫০-৩০০ ভারতীয় ছাত্র আক্রান্ত। হুবেই প্রদেশে সেই সংখ্যাটা হাজারের কাছাকাছি। চিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা দিনদিনই বাড়ছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায একের পর এক শহরে তালা। কাউকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। বেরোতেও দেওয়া হচ্ছে না। বাঙালি গবেষক কাজি আরিফ ইসলাম থেকে জানা গিয়েছে, চিন প্রশাসন করোনা ভাইরাস ঠেকাতে প্রচণ্ড কড়া। যারা যেখানে আছে সেখানেই আটকে রাখা হচ্ছে। সেখানেই প্রয়োজনে ট্রিটমেন্টের ব্যবস্থা করছে যাতে সংক্রমণ আটকানো যায় ৷
ইউহান-সহ হুবেই প্রদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেন এমন কয়েকশো ভারতীয় পড়ুয়া আটকে রয়েছেন। পরিস্থিতির উপর নজর রাখছে চিনে ভারতীয় দূতাবাস। নয়াদিল্লি চাইছে, বিশেষ বিমানে ভারতীযদের দেশে ফেরাতে। সে দিকেই তাকিয়ে বীরভূমের বাঙালি গবেষক কাজিও।
First published: January 26, 2020, 6:54 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर