বাড়ি বাড়ি গিয়ে করোনা নিয়ে বোঝানো হবে, দারুণ সিদ্ধান্ত রাজ্যের এই জেলাপরিষদের

বাড়ি বাড়ি গিয়ে করোনা নিয়ে বোঝানো হবে, দারুণ সিদ্ধান্ত রাজ্যের এই জেলাপরিষদের
Photo- Representive

কী করে ধোবেন, কী কাজে লাগে মাস্ক , কীভাবে ব্যবহার করে হ্যান্ড স্যানিটাইজার

  • Share this:

#বর্ধমান: পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সব কর্মী আধিকারিকদের মাস্ক পরানো হল। হাত পরিষ্কার করানো হল স্যানিটাইজারে। এছাড়া লিফলেট,ফ্লেক্স ব্যানারে সচেতনতামূলক প্রচার শুরু করা হয়েছে। বাজার হাট ব্যস্ত বাসস্ট্যান্ডে যাতে একসঙ্গে অনেকে জমায়েত না হন তা দেখা হবে। গ্রামীন মেলা, ধর্মীয় বা সামাজিক অনুষ্ঠানে লোক সমাগম যাতে না হয় তা দেখবেন জেলা পরিষদের সদস্যরা।

সেই সঙ্গে  করোনা মোকাবিলায় সচেতনতা বাড়াতে প্রতিটি বাড়িতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিল পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদ। জেলায় ২৩৫টি গ্রাম পঞ্চায়েত রয়েছে। প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েতের  প্রত্যেক সদস্যকে নিজের এলাকার প্রতিটি বাড়িতে গিয়ে সচেতনতা কর্মসূচি নিতে বলা হয়েছে। তাদের সঙ্গে আশাকর্মীরাও থাকবেন।

পঞ্চায়েত সদস্য ও আশা কর্মীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে কিভাবে হাত ধুতে হবে, কি কি স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে তা বোঝানো হবে।

পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধারা   জানান, করোনা সতর্কতায় ইতিমধ্যেই প্রতিটি  মহকুমায় প্রধান ও জন প্রতিনিধিদের নিয়ে  বৈঠক করা হয়েছে । সেখানে বাসিন্দাদের কিভাবে সচেতন করতে হবে, কোন কোন বিষয়ে সাবধান করতে হবে তা বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। জেলা পরিষদের এক কর্মাধ্যক্ষ বলেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক গুজব ছড়াচ্ছে। তাতে মানুষ বিভ্রান্ত। অনেকে আতঙ্কিত হয়ে যাচ্ছেন। বাসিন্দাদের আতঙ্কিত না হয়ে সতর্ক থাকতে বলছি আমরা।  একই সঙ্গে করোনা রুখতে কী কী নিয়ম মেন চলতে হবে তাও বোঝানো হবে বাড়ি বাড়ি গিয়ে। প্রত্যেক পঞ্চায়েত সদস্যকে নিজের নির্বাচনী কেন্দ্রের প্রতিটি বাড়িতে যেতে বলা হয়েছে। তারা গিয়ে মাস্ক ব্যবহার, হাত ধোয়া-সহ বিভিন্ন বিষয় বোঝাবেন। কেউ যাতে আতঙ্কিত হয়ে না পড়েন বা আতঙ্ক না ছড়ান সেই বিষয়েও বোঝাবেন।

পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদ সূত্রে জানা গেছে, এলাকায় দেশ বা রাজ্যের বাইরে থেকে কারা আসছেন, তারা কোথা থেকে আসছেন, তাদের শরীরে করোনার উপসর্গ রয়েছে কিনা সেই খবর রাখতে বলা হয়েছে। করোনা আক্রান্ত বা দেশ থেকে এলে তারা যাতে শারীরিক পরীক্ষা করিয়ে হোম কোয়ারান্টিনে থাকেন সেই পরামর্শ দিতে বলা হয়েছে। তারা যথাযথভাবে হোম কোয়ারান্টিনে থাকছেন কিনা নিয়মিত সে ব্যাপারে নজরদারি করতেও বলা হয়েছে।

 Saradindu Ghosh

First published: March 20, 2020, 10:34 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर