corona virus btn
corona virus btn
Loading

মৃত ৪২ ! পূর্ব বর্ধমানে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা

মৃত ৪২ ! পূর্ব বর্ধমানে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা

পূর্ব বর্ধমান জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। আজ, শনিবার পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলায় ২৪০০ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন

  • Share this:

#বর্ধমান: পূর্ব বর্ধমান জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। আজ, শনিবার পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলায় ২৪০০ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ২০১৪ জন ইতিমধ্যেই চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। ৩৪৪ জন বাসিন্দা করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তাঁদের বর্ধমান শহর লাগোয়া করোনা হাসপাতাল, সেফহোম ও হোভ আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জেলা প্রশাসনের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে সংক্রমণের হার কমাতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর সেই নির্দেশের পর জেলাজুড়ে করোনা পরীক্ষা বাড়ানোর কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। জেলা স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছে, পরীক্ষা বাড়িয়ে আক্রান্তদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় গত ২৪  ঘণ্টায় নতুন করে ৭৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। শনিবার পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে এই জেলায় ৪২ জন বাসিন্দার মৃত্যু হয়েছে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। নতুন করে আক্রান্ত ৭৭ জনের মধ্যে ৪০ জনই শহর এলাকার বাসিন্দা। এদের মধ্যে বর্ধমান পুরসভা এলাকায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩২ জন। কাটোয়া পুরসভা এলাকায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬ জন। গুসকরা ও মেমারি পুরসভা এলাকায় ১জন করে করোনা পজিটিভ।

এ'ছাড়া বর্ধমান ১ নম্বর ব্লকের ৪জন ও বর্ধমান ২নম্বর ব্লকে ৫ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। গলসি ১ নম্বর ব্লক, জামালপুর, খণ্ডঘোষ ব্লকে ২ জন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। কাটোয়া ১ নম্বর ব্লক, কাটোয়ার ২ নম্বর ব্লকে ৫ জন  করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। কেতুগ্রাম ১ নম্বর ব্লক, মেমোরি ১ নম্বর ব্লক ও মঙ্গলকোট ব্লকে ৩ জন করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। মেমারি ২ নম্বর ব্লক, পূর্বস্থলী ২ নম্বর ব্লক, রায়না ১  নম্বর ব্লকে ১ জন  করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

SARADINDU GHOSH

Published by: Rukmini Mazumder
First published: August 29, 2020, 10:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर