Home /News /south-bengal /

ভয়াবহ আকার নিচ্ছে করোনা সন্দেহ! সোনারপুরে সৎকারে কেউ এল না, ১০ ঘণ্টা পড়ে থাকল দেহ

ভয়াবহ আকার নিচ্ছে করোনা সন্দেহ! সোনারপুরে সৎকারে কেউ এল না, ১০ ঘণ্টা পড়ে থাকল দেহ

representative image

representative image

করোনায় মৃত্যু হয়েছে এই সন্দেহে ১০ ঘণ্টা পড়ে থাকল দেহ

  • Share this:

    #সোনারপুর: করোনায় মৃত্যু হয়েছে এই সন্দেহে ১০ ঘণ্টা পড়ে থাকল দেহ! সোনারপুরে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় বছর ৪৮- এর সঞ্জয় চক্রবর্তীর! স্থানীয়-সহ আত্মীয় পরিজনদের সন্দেহ, নিশ্চয়ই করোনায় মারা গিয়েছেন সঞ্জয়! তাই  সাহায্য করতে কেউ এগিয়ে এল না! প্রায় ১০ ঘণ্টা বাড়িতেই পড়ে রইল দেহ।

    জানা যায়, সকাল পাঁচটা নাগাদ সোনারপুর থানার গোবিন্দপুর নয়াবাজার এলাকার বাসিন্দা সঞ্জয় চক্রবর্তীর মৃত্যু হয়। এলাকায় গুজব ছড়িয়ে পড়ে,  করোনায় মৃত্যু হয়েছে তাঁর। যদিও মৃতের পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, হৃদরোগ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে সঞ্জয় চক্রবর্তীর। সকাল থেকে পাড়া প্রতিবেশীদের কাছে সৎকারের জন্য সাহায্য চাইলেও কেউ এগিয়ে আসেননি। প্রায় ১০ ঘণ্টা পর স্থানীয় ২ ব্যক্তির সাহায্যে উদ্ধার হয় দেহ। তাঁরাই শববাহী গাড়ি ডেকে মৃতদেহ বাড়ি থেকে বের করে শ্মশানে নিয়ে যান।  জানা যায়, করোয় মৃত্যু হয়েছে এই সন্দেহে ওই বাড়ির সামনে দিয়েও নাকি লোকে যাতায়াত বন্ধ করে দেয়।

     প্রসঙ্গত,  এদিন একইরকম নির্মম ঘটনার সাক্ষী হয় পশ্চিম মেদিনীপুরের ডেবরা। করোনা সন্দেহে ১৪ ঘণ্টা বাড়িতেই  পড়ে থাকে দেহ। অবশেষে দেহ উদ্ধার করে প্রশাসন। জানা যায়, কয়েকদিন ধরে জ্বর,গলা ব্যথা ছিল ডেবরার বাসিন্দা শুভেন্দু মাইতির। এদিন সকালে বাড়িতেই মৃত্যু হয় তাঁর।

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published:

    Tags: Sonarpur

    পরবর্তী খবর