Home /News /south-bengal /

Burdwan: বর্ধমানের গ্রামীণ এলাকায় উদ্বেগজনকভাবে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ 

Burdwan: বর্ধমানের গ্রামীণ এলাকায় উদ্বেগজনকভাবে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ 

শহর এলাকার পাশাপাশি পূর্ব বর্ধমান জেলার গ্রামীণ এলাকাগুলিতে করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলেছে

  • Share this:

#বর্ধমান: শহর এলাকার পাশাপাশি পূর্ব বর্ধমান জেলার গ্রামীণ এলাকাগুলিতে করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলেছে। কাজের প্রয়োজনে জেলা সদর বর্ধমানে আসতে হচ্ছে অনেককেই। আবার ঝুঁকি নিয়ে অনেকেই ভিড়ে ঠাসা ট্রেন- বাসে যাতায়াত করছেন। ফলে, গ্রামীণ এলাকার বাসিন্দারাও করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

তাঁরা বলছেন, ২০২০ সালের প্রথমে শহর এলাকার বাসিন্দারা বেশি করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। অনেক গ্রামীণ এলাকাতেই প্রথমদিকে করোনা সেভাবে প্রভাব বিস্তার করতে পারেনি। তবে ভিন রাজ্যে থেকে ফেরা পরিযায়ী শ্রমিকদের মাধ্যমে গ্রামীণ এলাকাতে পরবর্তী সময়ে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে। এবার দেখা যাচ্ছে শহর এলাকার পাশাপাশি গ্রামীণ এলাকাতেও সংক্রমণ দ্রুত ছড়াচ্ছে, যা যথেষ্ট উদ্বেগের।

আরও পড়ুন: এই শহরে টানা সাতদিন বন্ধ থাকবে চায়ের দোকান, আর কী কী বিধিনিষেধ জারি হচ্ছে?

জেলা প্রশাসন সূত্রে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় পূর্ব বর্ধমান জেলায় ৬২৫ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে অনেকেই গ্রামীণ এলাকার বাসিন্দা। গত ২৪ ঘণ্টায় বর্ধমান পৌরসভা এলাকায় ২০২ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। দাঁইহাট পৌরসভা এলাকায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন আট জন। কাটোয়া ও মেমারি পৌরসভা এলাকাতেও আটজন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কালনা পৌরসভা এলাকায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৫ জন। গুসকরা পৌরসভা এলাকায় তিনজন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

আরও পড়ুন: হুঁশ নেই বাসিন্দাদের, বর্ধমান শহরে দৈনিক সংক্রমণ ডাবল সেঞ্চুরি পার

গ্রামীণ এলাকারগুলির মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত কালনা ১ নম্বর ব্লকে।  এখানে গত ২৪ ঘন্টায় ৪০ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। পূর্বস্থলীর ২ নম্বর ব্লকে গত ২৪ ঘন্টায় ৩৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। খণ্ডঘোষ ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২০০ জন। পূর্বস্থলী ১ নম্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ জন। মেমারি ১ নম্বর ব্লকে ২৩ জন ও মেমারি দু'নম্বর ব্লকে ১৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মন্তেশ্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৫ জন। রায়না এক নম্বর ব্লকে ন জন ও রায়না দু'নম্বর ব্লকে পাঁচজন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কেতুগ্রাম ১ নম্বর ব্লকে দশজন ও কেতুগ্রাম দু'নম্বর ব্লকে নয় জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। গলসি ১ নম্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১০ জন। জামালপুর ব্লকে ১৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। কালনা দু'নম্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন চারজন। কাটোয়া ১ নম্বর ব্লকে চারজন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কাটোয়া দু'নম্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৬ জন। আউশগ্রাম ১ নম্বর ব্লকের ১০ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আউসগ্রাম ২ নম্বর ব্লকের করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১১ জন। ভাতার ব্লকে ২৫ জন আক্রান্ত হয়েছে। বর্ধমান ১ নম্বর ব্লকের ১৫ জন ও বর্ধমান দু'নম্বর ব্লকে ২৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। গলসি ১ নম্বর ব্লকের করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ জন।

Published by:Rukmini Mazumder
First published:

Tags: Burdwan

পরবর্তী খবর