corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভোটের মুখে বিজেপির কাঁথি সাংগঠনিক জেলায় বড়সড় ভাঙন !

ভোটের মুখে বিজেপির কাঁথি সাংগঠনিক জেলায় বড়সড় ভাঙন !
  • Share this:

#পূর্বমেদিনীপুর : সামনেই নির্বাচন। তার আগেই বিজেপির দল ভেঙে তৃণমূলে যোগ দিলেন শতাধিক নেতা ও কর্মী। শনিবার কাঁথি শহরে বিজেপি কর্মী সর্মথকরা রাজ্যের পরিবহন ও পরিবেশ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে তৃনমূলে যোগদান করেন।

দলে যোগ দেওয়া বিজেপি কর্মীদের হাতে তৃনমুলের দলীয় পতকা তুলে দেন মন্ত্রী। যেখানে উপস্থিত ছিলেন কাঁথি পুরসভার পুরপ্রধান সৌমেন্দু অধিকারী সহ কাউন্সিলারবৃন্দ।

শুভেন্দু অধিকারী জানান, মান অভিমান করে কিছু মানুষ দল ছেড়েছিলেন। অধিকারী পরিবারের সঙ্গে তাঁদের অনেক দিনের সম্পর্ক।

তবে বর্ষীয়ান তৃণমূল নেতা শিশির অধিকারীর হাত ধরে তারা আবার দলে ফিরে এসেছেন।

যার মধ্যে রয়েছেন কাঁথি জেলা বিজেপির সম্পাদক এবং দক্ষিণ কাঁথি বিধানসভা কেন্দ্রের অবজারভার তুষার কান্তি বিশ্বাস। এছাড়াও তৃণমূলের পুরানো বন্ধু কাঁথি নগর মন্ডলের যুব মোর্চার মূল পার্টির সভাপতি মহেশপুর সুর, খেজুরির পঞ্চায়েত সদস্য মনোজ মাইতি ও গোপীনাথ পাল, শান্তিরাম মাইতি, সফিউল হক, অনুপমা গিরি-কাঁথি নগর মন্ডল বিজেপির সম্পাদিকা, সোমা মুখার্জী-কাঁথি নগর মন্ডল।

শুভেন্দুবাবুর দাবী, বিজেপির কাঁথি নগর মন্ডল কার্যত তৃণমূলে মিশে গেল। এই এলাকায় বিজেপি নেতাদের আর কোনও অস্তিত্ব রইল না। তিনি জানান, যারা দলে এলেন তাঁরা যাতে দলে পূর্ণ মর্যাদা পান তা দেখা হবে।

বিজেপি থেকে তৃনমুলে আসা তুষারকান্তি বিশ্বাস বলেন, বিজেপির কাঁথি সাংগঠনি জেলায় গোষ্ঠীদন্দ্ব ও অন্তরকলহ ভর্তি। নির্বাচন এসে গেলে জেলা বিজেপি নেতারা নিজেদের মতো করেই সিদ্ধান্ত নেন।

এরা সাধারণ মানুষের হয়ে কাজ করেন না বলেই দাবী তাঁর।

এরই পাশাপাশি এদিন শিশির অধিকারীর হাত ধরেও শতাধিক বিজেপি কর্মী তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন বলে জানা গেছে। শিশিরবাবু তাঁদের হাতে তৃণমূলের দলীয় পতাকা তুলে দিয়েছেন।

অন্যদিকে এই ঘটনার বিষয়ে কাঁথি সাংগঠনিক জেলার বিজেপি সভাপতি তপন মাইতি বলেন, গনতন্ত্রে সবার সব দল করার অধিকার আছে। কেউ নিজের ইচ্ছেয় দল বদল করলে তাঁরা যেতে পারেন বলেই জানিয়েছেন তিনি।

First published: May 5, 2019, 3:53 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर