• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • নানুরে রাজনৈতিক হিংসা বন্ধে তৎপর মুখ্যমন্ত্রী, অসন্তুষ্ট কেন্দ্রের নোবেল চুরি তদন্তে

নানুরে রাজনৈতিক হিংসা বন্ধে তৎপর মুখ্যমন্ত্রী, অসন্তুষ্ট কেন্দ্রের নোবেল চুরি তদন্তে

নানুর থেকে রাজনৈতিক হিংসার দাগ মুছে ফেলতে তৎপর মুখ্যমন্ত্রী। বীরভূম জেলা প্রশাসনকে তাঁর কড়া বার্তা, কাউকে রেয়াত নয়, গন্ডগোল করলেই গ্রেফতার করা হোক।

নানুর থেকে রাজনৈতিক হিংসার দাগ মুছে ফেলতে তৎপর মুখ্যমন্ত্রী। বীরভূম জেলা প্রশাসনকে তাঁর কড়া বার্তা, কাউকে রেয়াত নয়, গন্ডগোল করলেই গ্রেফতার করা হোক।

নানুর থেকে রাজনৈতিক হিংসার দাগ মুছে ফেলতে তৎপর মুখ্যমন্ত্রী। বীরভূম জেলা প্রশাসনকে তাঁর কড়া বার্তা, কাউকে রেয়াত নয়, গন্ডগোল করলেই গ্রেফতার করা হোক।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #বীরভূম: নানুর থেকে রাজনৈতিক হিংসার দাগ মুছে ফেলতে তৎপর মুখ্যমন্ত্রী। বীরভূম জেলা প্রশাসনকে তাঁর কড়া বার্তা, কাউকে রেয়াত নয়, গন্ডগোল করলেই গ্রেফতার করা হোক। একইসঙ্গে নোবেল চুরি নিয়ে সিবিআই তদন্তে অনাস্থা প্রকাশ করেন তিনি। তাঁর দাবি, কেন্দ্র না পারলে তদন্তভার দেওয়া হোক রাজ্যকেই।

    আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় বীরভূম জেলা প্রশাসনকেও হাত খুলে খেলার নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসার ঘটনায় বারেবারেই উঠেছে নানুরের নাম। এবার সেই সমস্যা মেটাতেই খড়গহস্ত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জেলাশাসক-পুলিশ সুপারদের নিয়ে প্রশাসনিক বৈঠকে তাঁর কড়া বার্তা, ‘কাউকে রেয়াত করবেন না। গন্ডগোল করলেই গ্রেফতার করুন।’

    বৃহস্পতিবার, বিশ্বভারতীর অনুষ্ঠানে যোগ দেন মমতা।  সেখানে তাঁর ভাষণে তুলে আনেন রবিঠাকুরের নোবেল চুরি প্রসঙ্গ। সিবিআই তদন্তে অনাস্থা জানিয়ে তাঁর মন্তব্য, দায়িত্ব পেলে নোবেল চুরির কিনারা করতে চায় রাজ্য সরকারই।

    পাঁচামি-দেউচার মতো সাত রাজ্যের অধীনে থাকা কয়লা খনি অঞ্চল রাজ্যের হাতে তুলে দেওয়ার জন্য এদিন সওয়ালও করেন মমতা।

    বীরভূম জেলার একশো শতাংশ অঞ্চলে বিদ্যুতায়নের কাজ শেষ হয়েছে বলে দাবি করেন মুখ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে, জেলার রাস্তা ও অন্যান্য ক্ষেত্রে একগুচ্ছ প্রকল্পের শিলান্যাস করেন তিনি।

    First published: