• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • CID WILL INTERROGATES DOCTOR ON SUVENDU ADHIKARIS SECURITY GUARD SUBHABRATA CHAKRABORTYS MYSTERIOUS DEATH SB

Suvendu Adhikari Security Guard: শুভেন্দুর নিরাপত্তারক্ষী মৃত্যুতে চিকিৎসকের থেকে তথ্য সংগ্রহ! জাল গোটাচ্ছে CID

চাপ বাড়ছে শুভেন্দুর?

Suvendu Adhikari Security Guard: এবার সিআইডি-র জিজ্ঞাসাবাদের তালিকায় শুভেন্দুর দেহরক্ষী শুভব্রত চক্রবর্তীকে দেখা চিকিৎসকও। জেরা করা হবে যিনি শুভব্রতকে হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিলেন, সেই নিরাপত্তারক্ষীকেও।

  • Share this:

    #কাঁথি: রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর (Suvendu Adhikari) প্রাক্তন দেহরক্ষীর মৃত্যু-তদন্তে বারাবার অধিকারী বাড়ি 'শান্তিকুঞ্জ'-এর সামনে পৌঁছচ্ছে সিআইডি টিম। শনিবারই শান্তিকুঞ্জের উল্টো দিকের গ্যারেজ বাড়িতে সি আই ডি টিম এসে পৌঁছে গিয়েছিল। শনিবার কাঁথিতে শুভেন্দুর বাড়ি ‘শান্তিকুঞ্জ’-এর উল্টোদিকে অবস্থিত বাড়িটিতে যান তদন্তকারীরা। ওই বাড়িটিতেই থাকেন নিরাপত্তাররক্ষীরা। ওই আবাসস্থলের ভিডিয়োগ্রাফিও করেন তদন্তকারীরা। সঙ্গে ছিলেন শুভেন্দুর ভাই তথা তমলুকের সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারীও। এবার সিআইডি-র জিজ্ঞাসাবাদের তালিকায় শুভেন্দুর দেহরক্ষী শুভব্রত চক্রবর্তীকে দেখা চিকিৎসকও। জেরা করা হবে যিনি শুভব্রতকে হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিলেন, সেই নিরাপত্তারক্ষীকেও।

    জুন মাসেই শুভব্রতর মৃত্যু রহস্য নিয়ে নতুন করে অভিযোগ দায়ের করেন তাঁর স্ত্রী। সেখানে তিনি অভিযোগ তোলেন, গুলিবিদ্ধ হওয়া সত্ত্বেও দীর্ঘক্ষণ ফেলে রাখা হয়েছিল তাঁকে। অ্যাম্বুল্যান্স আসতেই দীর্ঘ সময় লাগে। তদন্তকারীরা এবার খতিয়ে দেখতে চাইছেন, সত্যিই কি অ্যাম্বুল্যান্স আসতে দেরি হয়েছিল? যিনি শুভব্রতকে নিয়ে গিয়েছিলেন ওই হাসপাতালে, তিনি কী দেখেছিলেন? সেই বিষয়গুলিকে আরও বিস্তারিতভাবে মিলিয়ে দেখতে চাইছেন তদন্তকারীরা। যখন তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল, তখন সে কী অবস্থায় ছিল, তাও খতিয়ে দেখা হবে।

    শুভেন্দু অধিকারীর প্রাক্তন নিরাপত্তারক্ষী শুভব্রত চক্রবর্তীর মৃত্যুর তদন্তে দু'দফায় কাঁথিতে বিরোধী দলনেতার বাড়ির সামনে নিরাপত্তা রক্ষীদের থাকার জায়গা ঘুরে দেখেন সিআইডি আধিকারিকরা৷ ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসে সেখানেই কর্তব্যরত অবস্থায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছিল শুভব্রতর৷ সেই ঘটনায় জুন মাসে নতুন করে এফআইআর দায়ের করেন তাঁর স্ত্রী। এমনকী সেই অভিযোগ পত্রে তিনি উল্লেখ করেন শুভেন্দু অধিকারী ও তাঁর ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত রাখাল বেরার নাম। প্রসঙ্গত, কলকাতার মানিকতলা থানার একটি প্রতারণার মামলায় রাখাল বেরাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

    তবে, প্রাক্তন নিরাপত্তারক্ষীর মৃত্যুর ঘটনার সিআইডি তদন্ত নিয়ে তিনি যে একেবারেই বিচলিত নন, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। শনিবারই নন্দীগ্রামে একটি দলীয় সভায় হাজির হয়ে সেই প্রসঙ্গ তুলে শুভেন্দু হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, 'আমি এক ইঞ্চি জমি ছাড়ব না৷ দু' বছর আট মাস আগে কে আত্মহত্যা করেছে, তা নিয়ে এখন তদন্ত করছে। আমাকে সিআইডি দেখিয়ে লাভ নেই৷ আমার বাড়িতে আশি বছরের বৃদ্ধ পিতা, ৭৩ বছরের বৃদ্ধা মা থাকেন৷ তাঁরা কেমন আছেন, দেখার জন্য সিআইডি পাঠিয়েছিল৷ আমাকে ভয় দেখিয়ে লাভ নেই৷ নন্দীগ্রাম আন্দোলনে আপনারা আমার ভূমিকা দেখেছেন৷'

    Published by:Suman Biswas
    First published: