শিশু চুরি করতে অন্তঃসত্ত্বা সাজিয়ে ভর্তি করা হত নার্সিংহোমে, শিশু চুরি চক্র বর্ধমানের নার্সিংহোমে

শিশু চুরি করতে অন্তঃসত্ত্বা সাজিয়ে ভর্তি করা হত নার্সিংহোমে, শিশু চুরি চক্র বর্ধমানের নার্সিংহোমে
প্রতীকী চিত্র ৷
  • Share this:

#বর্ধমান: মহিলাকে গর্ভবতী সাজিয়ে ভরতি করা। তারপর সেই মহিলার হাতেই চুরি করা শিশু তুলে দেওয়া। বর্ধমানের নার্সিংহোমে এমন একটি চক্রের খোঁজ মিলল। শিশু চুরির সঙ্গে জড়িত সন্দেহে নার্সিংহোমের এক কর্মী সহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। কত দিন ধরে সক্রিয় এই চক্র?

বর্ধমানের ভাঙাকুঠি এলাকায় নার্সিংহোম। গোটা জেলা থেকেই এখানে চিকিৎসা করাতে আসেন মানুষ। জনপ্রিয় এই নার্সিংহোমে শিশু চুরি চক্র সক্রিয় বলে অভিযোগ। কীভাবে সামনে এল এই শিশু চুরি চক্র?

কাটোয়ার পানুহাটের এক দম্পতি শিশুকন্যার জন্ম দেন

বিয়ের ১১ বছর পর সন্তান হয় দম্পতির

হঠাৎ করেই দম্পতির সন্তানকে দেখে স্থানীয় মানুষের সন্দেহ হয়

স্থানীয়দের অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নামে পুলিশ

তদন্তে কেঁচো খুঁড়তে কেউটে। জানা যায়, দু-দিন আগে গর্ভবতী সাজিয়ে হাসপাতালে আনা হয়েছিল এক মহিলাকে। দশ হাজার টাকায় তাঁর হাতে সদ্যোজাত এক শিশুকন্যাকে তুলে দেওয়া হয়

দম্পতিকে শিশু দেওয়ার আশ্বাস দেন নার্সিংহোমে টেকনিশিয়ান ৷ অভিযুক্ত টেকনিশিয়ান ও ওই দম্পতিকে গ্রেফতার করেছে কাটোয়া থানার পুলিশ। নার্সিংহোমের চিকিৎসক মোল্লা কাশেম আলির ভূমিকাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

হাসপাতালের কীর্তি ফাঁস হতেই আতঙ্কে রোগীদের। দুশ্চিন্তায় রোগীর পরিবারও।

নিউজ18 বাংলা শিশু চুরি চক্রের খবর প্রকাশ্যে আনতেই হাসপাতালের ছবি বদল। মুখে কুলুপ কর্মীদের

অভিযুক্ত দম্পতিকে কাদের শিশু চুরি করে দেওয়া হয়, তাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

First published: 09:52:20 AM Dec 13, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर