corona virus btn
corona virus btn
Loading

মেদিনীপুরের শিশুচুরিকাণ্ডে ধৃত ১, নাতি না থাকাতেই চুরি

মেদিনীপুরের শিশুচুরিকাণ্ডে ধৃত ১, নাতি না থাকাতেই চুরি
শিশুমৃত্যু তদন্তে ৩ সদস্যের কমিটি

আশাপূরণ না হওয়ায় অন্যের শিশুপুত্র চুরির সিদ্ধান্ত

  • Share this:

#মেদিনীপুর: ৩ দিন আগেই মাতৃমা হাসপাতালেই মেয়ের জন্ম দেন বৌমা। সাধ ছিল, নাতি হবে। আশাপূরণ না হওয়ায় অন্যের শিশুপুত্র চুরির সিদ্ধান্ত । স্বীকারোক্তি মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ থেকে শিশুচুরির ঘটনায় ধৃত সুলতানা বিবির। ধৃতের চারদিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেয় আদালত। নাতির শখ ছিল। কিন্তু পর-পর দুবার-ই নাতনি হয়। দিন তিনেক আগেই মেদিনীপুর মেডিক্যালের মাতৃমা বিভাগেই মেয়ের জন্ম দেন পুত্রবধূ। মরিয়া হয়েই তাই সুমিত্রা খামরুইয়ের সন্তান চুরির সিদ্ধান্ত। স্বীকারোক্তি শিশুচুরি-কাণ্ডে ধৃত সুলতানা বিবির। রবিবার বেলা এগারোটা নাগাদ নাতি ও ছেলের বউকে খাইয়ে প্রসূতি বিভাগের বাইরে আসেন কাঞ্চনগিরি এলাকার বাসিন্দা মাধবী খামরুই। কিছুক্ষণের মধ্যে ঘুমিয়ে পড়েন সুমিত্রা। ঘুম ভাঙতে দেখেন পাশে ছেলে নেই।

তবে শেষরক্ষা হয়নি। সিসিটিভির ফুটেজেই রহস্যফাঁস। ঘটনার ছ'ঘণ্টার মধ্যেই ধরা পড়ে যান সুলতানা। সোমবার মেদিনীপুরে আদালতে তোলা হয় মোমিন মহল্লার বাসিন্দা সুলতানা বিবিকে। জেরায় তিনি জানান, পুত্রবধূ ছাড়া পাওয়ার পরও গেট পাস ছিল। সেই পাসের সুযোগ নিয়েই ভিতরে ঢুকে শিশুচুরি। নজরদারি এড়িয়ে শিশুচুরির ঘটনায় হাসপাতালের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এই ঘটনার পিছনে কোনও চক্র কাজ করছে কিনা, খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

First published: February 10, 2020, 9:17 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर