ছোট্ট শিশুর গলার নলি কেটে খুন, পাশেই পড়ে মৃত এক যুবকও! ভয়ঙ্কর ছবি

ছোট্ট শিশুর গলার নলি কেটে খুন, পাশেই পড়ে মৃত এক যুবকও! ভয়ঙ্কর ছবি

ওই যুবক নিজেই নিজের গলার নলি কেটেছে কিনা বা অন্য কেউ তাকে খুন করে গেল কিনা তা ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

ওই যুবক নিজেই নিজের গলার নলি কেটেছে কিনা বা অন্য কেউ তাকে খুন করে গেল কিনা তা ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

  • Share this:

#পূর্ব বর্ধমান: সাতসকালেই জোড়া খুন! গলার নলি কাটা অবস্থায় মিলল এক শিশু ও এক যুবকের দেহ। পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনা থানার বুলবুলিতলার মাতিশ্বর ময়নাগড় এলাকায় এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ধারাল ছুরি দিয়ে গলার নলি কাটার ফলে তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক তদন্তের পর মনে করছে পুলিশ।

বুধবার সকালে মাতিশ্বর ময়নাগড়ে একটি খামার বাড়িতে ওই দুজনকে রক্তাক্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। শিশুটির ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। কালনা মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে ওই যুবককে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। শিশুর নাম জয় কিস্কু। তার বয়স আড়াই বছর। মৃত যুবকের নাম গোবিন্দ মাড্ডি।এখন প্রশ্ন হল, গোবিন্দ কি ওই শিশুকে গলার নলি কেটে খুন করার পর নিজেই নিজের গলায় ছুরি চালায়? নাকি অন্য কেউ তাকে বা দু'জনকেই খুন করল? সেই প্রশ্নের উত্তর খোঁজার চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ। ইতিমধ্যেই জেলার পদস্থ পুলিশ কর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত শুরু করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গ্রামের যুবক গোবিন্দ, বুধবার সকালে বাড়ি থেকে ওই শিশুকে নিয়ে গ্রামের অপেক্ষাকৃত ফাঁকা জায়গা ওই খামারবাড়িতে যায়। বেশ কিছুক্ষণ পর ওই শিশু বাড়ি না ফেরায় তার ঠাকুরমা তাকে খুঁজতে বের হন। তিনি দু’জনকে রক্তাক্ত অবস্থায় খামারবাড়িতে পড়ে থাকতে দেখেন।

তদন্তকারী পুলিশ অফিসারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গিয়েছে, শিশুটি কে খুন করা হয়েছে এ ব্যাপারে কোনও সন্দেহ নাই। এখন প্রশ্ন হল শিশুটিকে কে খুন করল? ওই যুবক কি তাকে খুন করে ধরা পড়ে যাবার ভয়ে নিজেই নিজের গলার নলি কেটে আত্মহত্যা করেছে, নাকি অন্য কেউ তাদের খুন করে গেল এই প্রশ্নের জট খুলতে স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলছেন তদন্তকারী পুলিশ অফিসাররা। ওই শিশুর পরিবারের প্রতি ওই যুবক বা অন্য কারও কোনও আক্রোশ ছিল কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন স্বাধীন ভারতের ইতিহাসে প্রথম পৌষ মেলাহীন শান্তিনিকেতন, যদিও প্রথা মেনে হচ্ছে পৌষ উৎসব

জেলা পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় বলেন, শিশুটিকে খুন করা হয়েছে। ওই যুবক নিজেই নিজের গলার নলি কেটেছে কিনা বা অন্য কেউ তাকে খুন করে গেল কিনা তা ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে নিশ্চিত হওয়া যাবে। ওই যুবক নিজেই গলার নলি কাটলে ময়নাতদন্তে তা নিশ্চিতভাবে জানা যাবে। কি কারনে সাত সকালে শিশুটিকে খুন করা হল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Published by:Pooja Basu
First published:

লেটেস্ট খবর