corona virus btn
corona virus btn
Loading

খুশির খবর বর্ধমানে, চিতা শাবকের জন্ম রমনাবাগানে

খুশির খবর বর্ধমানে, চিতা শাবকের জন্ম রমনাবাগানে

খুশির খবর বর্ধমান জুলজিক্যাল পার্ক রমনা বাগানে। নতুন সদস্য এলো কোল আলো করে।

  • Share this:

#বর্ধমান: খুশির খবর বর্ধমান জুলজিক্যাল পার্ক রমনা বাগানে। নতুন সদস্য এলো কোল আলো করে। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর কালী জন্ম দিল নতুন সন্তানের। ধ্রুব আর কালীর নতুন সন্তানকে ঘিরে এখন মিনি জু রমনাবাগান অভয়ারণ্যে খুশির হাওয়া। তবে একরত্তিকে এখন কিছুতেই কোল ছাড়া করছে না কালী। তাদের বিশেষ নজরদারিতে রেখেছে বন দফতর। সব সময় তাদের শারীরিক অবস্থার ওপর নজরে রেখেছেন বন বিভাগের  চিকিৎসকরা।

বর্ধমানের গোলাপবাগ সংলগ্ন রমনাবাগান মিনি জুকে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছিল আগেই। আকর্ষণ বাড়াতে গত বছরের শেষ দিকে উত্তরবঙ্গ থেকে দুটি চিতাবাঘ ধ্রুব ও কালীকে নিয়ে আসা হয়েছিল এই রমনাবাগান জুলজিক্যাল পার্কে। পার্কের আকর্ষণ বাড়াতে চিতা যুগলের জন্য প্রবেশ পথের একদম সামনেই তৈরি করা হয়েছিল বিশাল এনক্লোজার। গত মার্চ মাস থেকে করোনা সংক্রমণ ও  লকডাউন শুরু হওয়ায় এই পার্কও দর্শকদের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়। এখনও তা বন্ধই রয়েছে। সেই নির্জন পরিবেশে নতুন সন্তানের জন্ম দিল কালী। ধ্রুব ও কালীর সন্তান জন্ম হওয়ার খবরে উচ্ছ্বসিত অভয়ারণ্যের সঙ্গে যুক্ত সকলেই। জেলার মুখ্য বনাধিকারিক দেবাশীষ শর্মা জানিয়েছেন, লকডাউনের মধ্যে সন্তান প্রসবের ক্ষেত্রে কিছু সমস্যা দেখা দিয়েছিল। তা নিয়ে আমরা চিন্তিতও ছিলাম।  শেষমেষ শনিবার অর্থাৎ ১২সেপ্টেম্বর মা চিতা কালী সুস্থভাবেই শাবকের জন্ম দিয়েছে। এখন দুজনেই বেশ সুস্থ আছে। শাবককে একদম কোল ছাড়া করছে না কালী। ফলে পরীক্ষা নিরীক্ষার ব্যাপারে কিছু সমস্যা হচ্ছে। বনদফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসার অপেক্ষা। ততদিনে কিছুটা বড়ও হয়ে যাবে রমনাবাগানের এই ক্ষুদে সদস্য। মিনি জু ফের চালু হলে ধ্রুব কালীর সঙ্গে তাদের সন্তানও দর্শকদের কাছে বিশেষ আকর্ষণের কেন্দ্র বিন্দু হয়ে উঠবে বলেই মনে করছে বন দফতরের আধিকারিকরা। তাই আর কিছুদিনের অপেক্ষা।  মিনি জু খুললে যে এবার দর্শকদের ঢল নামবে তা আগাম টের পাচ্ছেন বনদপ্তরের কর্মীরা। শরদিন্দু ঘোষ
Published by: Akash Misra
First published: September 14, 2020, 5:55 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर