লাগামছাড়া দূষণের গ্রাসে সমুদ্র ! বিপন্ন সামুদ্রিক জীববৈচিত্র

লাগামছাড়া দূষণের গ্রাসে সমুদ্র ! বিপন্ন সামুদ্রিক জীববৈচিত্র

কীভাবে মারা যাচ্ছে এই প্রাণিরা ? ঘটনার কথা শুনলে চমকে যেতে হয়।

  • Share this:

#দিঘা,পূর্ব মেদিনীপুর: পারাদ্বীপ থেকে পুরী। ১২৫ কিলোমিটার কোস্টাল ট্রেকিংয়ের পথে অজস্র সামুদ্রিক জীবের কঙ্কাল। সেখানকার সিনিক বিউটি মনকে প্রশান্তি দিলেও, সমুদ্রতটে মরা জীব ও আবর্জনার স্তূপ কপালে চিন্তার ভাঁজও ফেলবে। কিন্তু কীভাবে মারা যাচ্ছে এই প্রাণিরা ? ঘটনার কথা শুনলে চমকে যেতে হয়।

সমুদ্রতীরে ছুটি কাটানোর ডেস্টিনেশন। দিঘা, মন্দারমণি কিংবা পুরী। ছুটি পেলেই জনমানবহীন সাগরপারে ছুটে যাওয়া। কিন্তু পায়ে হেঁটে সমুদ্রের পার ধরে অজানা সমুদ্রকে আবিষ্কার খুব কম লোকেই করেছেন। আর এভাবে সমুদ্রকে আবিষ্কার করতে গিয়ে সমুদ্রতীরের ভয়াবহ অভিজ্ঞতা কোস্টাল ট্রেকারদের। শুধু সাগরপারের দূষণ নয়, সি বিচে পড়ে রয়েছে মরা কচ্ছপ, ডলফিন, জেলিফিশ, কাঁকড়া-সহ বিভিন্ন সামুদ্রিক মাছ।

কিন্তু পারাদ্বীপ থেকে পুরীর এই ১২৫ কিলোমিটার কোস্টাল ট্রেকিংয়ের পথে কীভাবে মারা যাচ্ছে প্রাণিরা?

ডেথ-ট্রেক

-- ট্রলার নিয়ে মাছ ধরতে যাওয়ার সময় জাল বাঁচাতে শক স্টিক তৈরি করেন মৎস্যজীবীরা

-- ট্রলারে আলো জ্বালানোর ব্যাটারি থেকে ইলেকট্রিক নিয়ে তৈরি হয় শক স্টিক

-- নেটের আশপাশে কচ্ছপ বা সামুদ্রিক প্রাণিরা এলেই শক লেগে মারা যায়

-- ওড়িশার উপকূলে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের এক বিশেষ প্রজাতির কচ্ছপ ডিম পারে

-- প্রায় দেড় বছর জলে ভেসে তারা ওড়িশা উপকূলে পৌঁছয়

-- কচ্ছপ মেরে পেট থেকে ডিম বের করে ওষুধ তৈরির জন্য চোরাশিকার হয়

সমুদ্রবিজ্ঞানীদের দাবি, এর জেরে ব্যাপকভাবে ক্ষতি হচ্ছে উপকূল অঞ্চলের। যার বড়সড় প্রভাব পড়বে সামুদ্রিক জীববৈচিত্রে।

প্রশাসনের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের যদি সচেতনতা না হয় তবে পরিবেশের ভয়াবহ ক্ষতির আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

First published: 09:57:10 AM Jan 30, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर