corona virus btn
corona virus btn
Loading

২ চোখে অন্ধকার নিয়ে অন্যের ঘরে আলো জ্বালাচ্ছেন এই ছাত্রেরা

২ চোখে অন্ধকার নিয়ে অন্যের ঘরে আলো জ্বালাচ্ছেন এই ছাত্রেরা
Blind student making candle

২ চোখে অন্ধকার নিয়ে অন্যের ঘরে আলো জ্বালাচ্ছেন এই ছাত্রেরা

  • Share this:

#হলদিয়া: দু'চোখে অন্ধকার। অথচ তারাই অন্যকে দিচ্ছে আলো। দীপাবলীতে তাদের তৈরি মোমবাতিই ঘরে ঘরে আলো জ্বালবে। আলোর উৎসবে তাই ব্যস্ততা তুঙ্গে হলদিয়ার রামপুর বিবেকানন্দ মিশনে। চিনা এলইডি-র একচ্ছত্র বাজারে থাবা বসিয়েছে দৃষ্টিহীনদের তৈরি মোমবাতি।

এরা সকলেই জন্মান্ধ। প্রকৃতির সৌন্দর্যের স্বাদ নেওয়া তাদের কপালে নেই। এই আক্ষেপ ভুলে নতুন করে বাঁচার পথ পেয়েছে রবীন্দ্রনাথ, দীপক, বিক্রম, পিন্টু, বাবাইরা। আর কয়েকদিন পরই দীপাবলী। জীবনের দুঃখ ভুলতে তারা ব্যস্ত মোমবাতি তৈরিতে। রামপুর বিবেকানন্দ মিশনের ২২জন দৃষ্টিহীন আবাসিক মাস দুয়েক ধরে দিনরাত এক করে মোমবাতি বানিয়ে চলেছে। সেখানে এখন চূড়ান্ত কর্মব্যস্ততা। বেশ কিছু মোমবাতি ইতিমধ্যে বাজারে পাঠানোও শুরু হয়েছে। তারা দেখতে না পাক, তাদের তৈরি মোমবাতি জ্বালিয়ে অন্যরা আনন্দ পাবে। এই ভেবেই আত্মহারা বিক্রম, রবীন্দ্রনাথরা।

তবে শুধু দীপাবলী উপলক্ষেই নয়। সারাবছরই মোমবাতি তৈরি করে এখানকার আবাসিকরা। তাদের তৈরি মোমবাতি হলদিয়ার শিল্পাঞ্চলে বেশ ভালোই ব্যবসা করে। এর মাধ্যমে আয়ের পথও খুলেছে।

এদিকে, হলদিয়ার প্যারাফিন সরাসরি না মেলায়, মোমবাতি তৈরিতে খরচ একটু বেশি পড়ে যায়। মিশন কৃর্তপক্ষের আরজি, সরকার সুলভে প্যারাফিন জোগাড়ের ব্যবস্থা করে দিলে, আরও সহজ হবে অসহায় ছেলে-মেয়েদের পথ চলা।
First published: October 9, 2017, 7:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर