এল বসন্ত, প্রেমের জোয়ারে ভাসল বর্ধমানের গোলাপবাগ 

এল বসন্ত, প্রেমের জোয়ারে ভাসল বর্ধমানের গোলাপবাগ 
representative image

হোক না মেঘলা আকাশ, হোক না ঝিরঝিরে বৃষ্টি ৷ এটা শুধুই ভালবাসার দিন

  • Share this:

#বর্ধমান: বসন্ত এসে গিয়েছে ৷ এ বসন্ত মনের...অপেক্ষা, উপলব্ধি, প্রেম বিনিময়ের ৷ ক্য়ালেন্ডার যাই বলুক...এটাই বাঙালির ভ্য়ালেন্টাইন্স ডে ৷ সেই আবেগের ছবিই ধরা পড়ল বর্ধমান বিশ্ববিদ্য়ালয়ের গোলাপবাগ তারাবাগ চত্বরে৷ হোক না মেঘলা আকাশ, হোক না ঝিরঝিরে বৃষ্টি ৷ এটা শুধুই ভালবাসার দিন ৷

বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ে সরস্বতী পুজোর পরদিন এক ছাত্রাবাস থেকে অন্য ছাত্রাবাসে তত্ত্ব পাঠানোই রীতি ৷ মীরাবাঈ, নিবেদিতা, প্রীতিলতা, সরোজিনী, গার্গীর মতো ছাত্রাবাস থেকে মাথায় ফুল বেঁধে, সেজেগুজে বেরোন ছাত্রীরা ৷ গন্তব্য় অরবিন্দ, চিত্তরঞ্জন, নেতাজি, বিবেকানন্দ, রবীন্দ্র কিংবা আইনস্টাইন বয়েজ হস্টেল। ছেলেরাও বাজনা বাজিয়ে পৌঁছে যান গার্লস হস্টেলগুলিতে। তত্ত্বের ডালিতে থাকে চকোলেট, চিপস, পারফিউম আর অনেক অনেক না বলা কথা। ছাত্রীরা ফুল ছড়িয়ে বরণ করে নেয়  ছাত্রীদের।  কমন রুমে বসিয়ে আপ্যায়ন করে। মুখে বলতে না পারলে হাতে গুঁজে দেয় প্রেমপত্র। যাঁরা আগেই হাত ধরাধরি করে বাকি জীবন একসঙ্গে পথ চলার কথা দিয়েছেন, বন্ধুদের মাঝে তাঁদের মালাবদলও হয়।

সরস্বতী পুজোয় ছাত্রীবাসে ঢোকায় কোনও বাঁধা নেই। সেই সুযোগে গুটিগুটি পায়ে মনের গভীরে বাসা বাঁধে বসন্ত। মন বলে, এমন দিনে তারে বলা যায়। বলা যায়, ভালবাসি। চোখের ইশারায় পাকা কথা হয়ে যায় এদিনই। এভাবেই অনভ্য়াসের শাড়ি হাত ধরে পাঞ্জাবির ৷

Saradindu Ghosh  
First published: January 30, 2020, 2:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर