corona virus btn
corona virus btn
Loading

কোথাও দোকান বন্ধ, কোথাও দেওয়া হচ্ছে কম চাল, চিনি ! রেশনে ফাঁকির অভিযোগে ক্ষোভ সাধারণ মনুষের

কোথাও দোকান বন্ধ, কোথাও দেওয়া হচ্ছে কম চাল, চিনি ! রেশনে ফাঁকির অভিযোগে ক্ষোভ সাধারণ মনুষের

লকডাউনের মাঝে রেশনে খাদ্য সামগ্রী বন্টনকে কেন্দ্র করে গোলমালের ঘটনা ঘটল পূর্ব বর্ধমান জেলায়

  • Share this:

 # পূর্ব বর্ধমান: লকডাউনের মাঝে রেশনে খাদ্য সামগ্রী বন্টনকে কেন্দ্র করে গোলমালের ঘটনা ঘটল পূর্ব বর্ধমান জেলায়। কোথাও বা  খাদ্য সামগ্রী না আসার অজুহাত দেখিয়ে দোকান না খোলার অভিযোগ উঠছে। কোথাও আবার রেশনে চাল-চিনি কম দেওয়ার অভিযোগকে কেন্দ্র করে ক্ষোভের সৃষ্টি হচ্ছে। কোথাও আবার রেশন কার্ড থাকলেও নথিভূক্ত নন এই অভিযোগে খাদ্য সামগ্রী না দেওয়ার অভিযোগ উঠছে। অনেক ক্ষেত্রেই পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশকে হস্তক্ষেপ করতে হয়েছে। বর্ধমান শহরেও রেশনে খাদ্য সামগ্রী যথাযথভাবে বন্টন হচ্ছে কিনা, তা দেখতে এলাকায় এলাকায় টহল দেয় পুলিশ।

রেশনে খাদ্য সামগ্রী কম দেওয়ার অভিযোগকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় পূর্ব বর্ধমানের নিমো ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের কেন্না সমবায় সমিতিতে। সেখানে সকালে রেশনে খাদ্য সামগ্রী  বিতরণ শুরুর ঘণ্টাখানেক পরই কিছু গ্রাহক বেনিয়মের অভিযোগ তুলে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। তাঁদের দাবি, মাথাপিছু একশো গ্রাম করে জিনিস কম দিয়েছে সমবায়। এভাবে প্রায় ৫০-৬০ জন গ্রাহককে কম রেশন দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ।

 আরকেএসওয়াই ১-এর অধীনে থাকা কিছু গ্রাহককে ১০০ গ্রাম করে জিনিস কম দেওয়া হয়েছে বল স্বীকার করে নেন সমবায়ের ম্যানেজার। তবে সংখাটা ১০-১২ জন বলে তাঁর দাবি। বিক্ষোভের খবর পেয়ে মেমারি থানার  পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। সেখানে যান নিমো ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানও। যাঁদের জিনিস কম দেওয়া হয়েছে, তাঁদের তা পরে দিয়ে দেওয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন সমবায়ের ম্যানেজার।

জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, রেশন দোকান নিয়মমাফিক খুলতে হবে। কোনওরকম অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না। নিয়ম মেনে রেশনে খাদ্য সামগ্রী বন্টন নিশ্চিত করতে পুলিশকে বাড়তি নজরদারির পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এই সময় অনেকের বাড়িতেই খাদ্য সামগ্রী কম রয়েছে। রেশনের মাধ্যমে তাঁদের কাছে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা চলছে। তাই কেউ এই সুযোগে বেআইনি কারবার করতে চাইলে কড়া ব্যবস্থা নেবে প্রশাসন।

Saradindu Ghosh

First published: April 2, 2020, 5:38 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर