corona virus btn
corona virus btn
Loading

বর্ধমানে অফিসে হাজিরা দিতে গিয়ে ভোগান্তিতে সরকারি কর্মীরা

বর্ধমানে অফিসে হাজিরা দিতে গিয়ে ভোগান্তিতে সরকারি কর্মীরা

লোকাল ট্রেন চলাচল এখনও শুরু হয়নি। তার ওপর রাস্তায় নামেনি বেসরকারি বাস। তাই দীর্ঘ লকডাউন পর্বের পর সোমবার অফিসে হাজিরা দিতে গিয়ে সমস্যায় নাজেহাল পূর্ব বর্ধমান জেলার সরকারি কর্মীরা

  • Share this:

#পূর্ব বর্ধমান: লোকাল ট্রেন চলাচল এখনও শুরু হয়নি। তার ওপর রাস্তায় নামেনি বেসরকারি বাস। তাই দীর্ঘ লকডাউন পর্বের পর সোমবার অফিসে হাজিরা দিতে গিয়ে সমস্যায় নাজেহাল পূর্ব বর্ধমান জেলার সরকারি কর্মীরা। বাস ট্রেন না থাকায় অনেকে অফিসে পৌঁছলেন সাইকেল, মোটর সাইকেলে। অনেকে আবার শেয়ারে গাড়ি ভাড়া করে অফিসে হাজিরা দিলেন। তাঁরা বলছেন, '' অনেক কষ্ট করে অফিসে আসতে পেরেছি। কখন কীভাবে বাড়ি ফিরব,  জানি না।'' জেলাজুড়ে বেসরকারি বাস চলাচল স্বাভাবিক হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছেন তাঁরা।

দীর্ঘ লকডাউন পর্ব কাটিয়ে আবার অফিস যাওয়ার তাগিদ। তাই সকাল-সকাল শুরু হয়েছিল তার প্রস্তুতিও।  কিন্তু পথে নেমেই বিপত্তি। যাতায়াতের বাসের দেখা নেই। লোকাল ট্রেন চলাচল করছে না। সোমবার থেকে অন্তত বেসরকারি বাস চলবে এমনটাই আশা করা গিয়েছিল। কিন্তু লকডাউনে  বন্ধ হয়ে যাওয়া বেসরকারি বাস এদিনও চলেনি। তাই অপেক্ষায় না থেকে বিকল্প ব্যবস্থা করে অফিস পৌঁছতে দুপুর গড়ালো অনেকেরই। ৭৭ দিন পর অফিসে পৌঁছে খুশি হওয়ার বদলে তাই বিরক্ত প্রকাশ করলেন  অনেকেই। অনেকেই তাই হাজিরা খাতায় সই করে পরিচিতদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করে বাড়ি ফেরার উদ্যোগ নিলেন।

জেলা প্রশাসন অবশ্য জানিয়েছে, এদিন অনেক সরকারি অফিসেই ৭০  শতাংশের ওপরেই কর্মীদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গিয়েছে। এমনিতেই বর্ধমানে জেলাশাসকের অধীনে বেশ কয়েকটি অফিসে কর্মীরা নিয়মিত হাজির হচ্ছিলেন। জেলাশাসক, অতিরিক্ত জেলাশাসক প্রতিদিনই অফিসে আসায় সেইসব অফিসের কর্মীরাও নিয়মিত অফিসে আসছিলেন।

এদিন জেলাশাসকের অধীনে বিভিন্ন দফতরের কর্মীরা দীর্ঘ গৃহবন্দি অবস্থা কাটিয়ে অফিসে আসেন। তবে বেলা দশটায় বেশিরভাগ সরকারি অফিসই ছিল কর্মীশূন্য। বেশিরভাগ কর্মী এসেছেন বেলা এগারোটার পর। অনেককে বেলা একটার পরও অফিসে এসে হাজিরা খাতায় সই করতে দেখা গিয়েছে। তাঁরা জানিয়েছেন, ''সময় মত ঘর থেকে বেরিয়েও বাসের দেখা না মেলায় তাঁরা সময়ে অফিসে উপস্থিত হতে পারেননি।''

SARADINDU GHOSH

Published by: Rukmini Mazumder
First published: June 8, 2020, 11:52 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर