Home /News /south-bengal /
Burdwan Bank Dacoity: বর্ধমান থানা, এসপি অফিসের অদূরে দুঃসাহসিক ডাকাতি, জেলা জুড়ে শুরু তল্লাশি

Burdwan Bank Dacoity: বর্ধমান থানা, এসপি অফিসের অদূরে দুঃসাহসিক ডাকাতি, জেলা জুড়ে শুরু তল্লাশি

বর্ধমানের এই ব্যাঙ্কের শাখাতেই ডাকাতির ঘটনা ঘটে৷

বর্ধমানের এই ব্যাঙ্কের শাখাতেই ডাকাতির ঘটনা ঘটে৷

ব্যাঙ্কের কর্মী আধিকারিক ও প্রত্যক্ষদর্শী আমানতকারীদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। ডাকাতির ঘটনার বিস্তারিত খোঁজ খবর নেন (Burdwan Bank Dacoity)।

  • Share this:

#বর্ধমান: ব্যাঙ্ক ডাকাতদের হদিশ পেতে জেলা জুড়ে নাকা তল্লাশি শুরু করল পূর্ব বর্ধমান (Burdwan Bank Dacoity) জেলা পুলিশ। সেই সঙ্গে এই ডাকাতির ঘটনার তদন্তে সিট গঠন করা হয়েছে।

ব্যাঙ্ক ডাকাতির (Burdwan Bank Dacoity) খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান জেলা পুলিশ সুপার কামনাশিস সেন। ব্যাঙ্কের কর্মী আধিকারিক ও প্রত্যক্ষদর্শী আমানতকারীদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। ডাকাতির ঘটনার বিস্তারিত খোঁজ খবর নেন। এর পর জেলা পুলিশ সুপার সাংবাদিকদের জানান, ঘটনার তদন্তে স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন টিম গঠন করা হয়েছে। সেই সঙ্গে শহর থেকে বেরোনোর সব রাস্তা, বাস স্ট্যান্ড, রেল স্টেশনে বাড়তি নজরদারি ব্যবস্থা করা হয়েছে। পাশাপাশি জেলার সব থানা এলাকায়নাকা তল্লাশি শুরু করা হয়েছে।

শুক্রবার সকালে বর্ধমান শহরের প্রাণ কেন্দ্র কার্জন গেটের পাশে জনবহুল এলাকায় পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কের শাখায় বড় ধরনের ডাকাতির ঘটনা ঘটে। আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে ৩৩ লক্ষ টাকা লুঠ করে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। এই ঘটনায় যথেষ্টই চাপের মধ্যে পড়েছে পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ।

আরও পড়ুন: বার ডান্সার-বার সিঙ্গারের প্রেম জমে উঠেছিল! গভীর রাতে ফল হল মারাত্বক...

এই ব্যাঙ্কের শাখা থেকে কিছুটা দূরে বর্ধমান থানা এবং বর্ধমান জেলা পুলিশ সুপারের অফিস। তারই মাঝে ৪৫ মিনিট ধরে ব্যাঙ্কের শাখায় অপারেশন চালায় ছ' সাত জন দুষ্কৃতী। তবে তারা কোন পথে এসেছিল বা  কীভাবে চম্পট দেয় সে বিষয়ে অন্ধকারে রয়েছেন পুলিশ অফিসাররা।

আরও পড়ুন: ভরদুপুরে শহরের প্রাণকেন্দ্রে দুঃসাহসিক ব্যাঙ্ক ডাকাতি, ঘটনাস্থলে বর্ধমান পুলিশের পদস্থ কর্তারা

তবে ব্যাঙ্কের নীচের সঙ্গে কথা বলে বিশেষ সূত্র মেলেনি বলেই জানা গিয়েছে। ব্যাঙ্কের সিসিটিভি ফুটেজ পাওয়া যায় কি না তাও খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারী পুলিশ অফিসাররা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, দুষ্কৃতীদের অধিকাংশেরই বয়স ৩৪ বছরের আশেপাশে। একজনের বয়স তুলনামূলক কম। তার বয়স ২৫ বছরের কাছাকাছি। প্রত্যেকের হাতেই আগ্নেয়াস্ত্র ছিল। একজনের হাতে সাদা রঙের একটি রিভলবার ছিল। একজন বাইরে অপেক্ষা করছিল। বাকিরা ভিতরে ঢোকে। তবে বাইরে তাদের আর কোনও সঙ্গী ছিল কি না তা জানা যায়নি। ছ' জনের মধ্যে পাঁচ জন হিন্দিতে কথা বলছিল।

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: Burdwan

পরবর্তী খবর