Home /News /south-bengal /
বিপজ্জনক বাড়িতে স্কুল! গেটে পড়ল তালা, অনিশ্চিত পড়ুয়াদের ভবিষ্যৎ

বিপজ্জনক বাড়িতে স্কুল! গেটে পড়ল তালা, অনিশ্চিত পড়ুয়াদের ভবিষ্যৎ

বিপজ্জনক বাড়ির বাসিন্দাদের সতর্ক করার জন্য সব থানাকে নির্দেশ দেয় লালবাজার। মঙ্গলবার সকালে চি‍ৎপুরের অলিগলিতে কখনও অটো ও কখনও হেঁটে মাইকিং করেন পুলিশকর্মীরা। বাড়ি খালি করে সরকারি শেল্টারে যেতে অনুরোধ করা হয় বাসিন্দাদের।

বিপজ্জনক বাড়ির বাসিন্দাদের সতর্ক করার জন্য সব থানাকে নির্দেশ দেয় লালবাজার। মঙ্গলবার সকালে চি‍ৎপুরের অলিগলিতে কখনও অটো ও কখনও হেঁটে মাইকিং করেন পুলিশকর্মীরা। বাড়ি খালি করে সরকারি শেল্টারে যেতে অনুরোধ করা হয় বাসিন্দাদের।

১৯৭২ সাল থেকে এই বাড়িতেই বসত ইস্টার্ন রেল অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্লাস।

  • Share this:

    #কাটোয়া: বাড়ি বিপজ্জনক। রেলের জমিতে থাকা সরকারি প্রাথমিক স্কুলে তালা ঝুলিয়ে দিল কর্তৃপক্ষ। পূর্ব বর্ধমানের কাটোয়ার ঘটনায় তুঙ্গে পুরসভা-রেল কাজিয়া।  পুরসভার অভিযোগ, রেলের সিদ্ধান্ত অমানবিক। রেলের পাল্টা দাবি, শিশুদের জীবন বাঁচাতেই এই সিদ্ধান্ত।

    ১৯৭২ সাল থেকে এই বাড়িতেই বসত ইস্টার্ন রেল অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্লাস। বুধবার স্কুলে গিয়ে দেখা গেল, সামনের বারান্দায় বসে পড়ুয়ারা। দরজায় ঝুলছে তালা। রেল পুলিশের এক আধিকারিকও বসে আছেন দরজার সামনে। কাটোয়া পুরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে রেলের জমিতেই শুরু হয়েছিল সরকারি এই স্কুল। পড়ুয়া থেকে প্রধান শিক্ষিকার অভিযোগ, তাদের কিছু না জানিয়েই তালা ঝুলিয়েছে রেল। স্কুল বাড়ির গায়ে ফাটল স্পষ্ট। রেলের দাবি, চার বছর আগেই এই বাড়ি থেকে স্কুল সরাতে পুরসভাকে অনুরোধ করা হয়। যদিও রেলের সিদ্ধান্তকে অমানবিক বলেই অভিযোগ পুরসভার। স্কুলে তালা। ভিতরে আটকে তাঁদের অনেক নথি। দাবি, প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের আধিকারিকের। এই ঘটনার পরেও অবশ্য বন্ধ হয়নি পড়াশোনা। আপাতত পাশের একটু স্কুলে ঠাঁই হয়েছে ১১০ জন পড়ুয়ার। সেখানেই তাদের দেওয়া হচ্ছে মিড-ডে মিল।
    Published by:Elina Datta
    First published:

    Tags: Building, Dangerous building, School Closed

    পরবর্তী খবর