corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউনের মধ্যেই তৈরি হচ্ছিল লিটার লিটার চোলাই! মদ খেয়ে ঘরে এসে চলছিল মারধর

লকডাউনের মধ্যেই তৈরি হচ্ছিল লিটার লিটার চোলাই! মদ খেয়ে ঘরে এসে চলছিল মারধর
  • Share this:

Saradindu Ghosh

#বর্ধমান: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউন। সেই লকডাউনের মাঝেই চলছিল চোলাই মদের রমরমা কারবার। গোপনে চোলাই তৈরি করে তা বিক্রি করা হচ্ছিল চড়া দামে।  এলাকায় তো বটেই, সেই চোলাই পাচার হচ্ছিল জেলার অন্যত্রও। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সেই চোলাই মদের ঠেকে অভিযান চালাল আবগারি দফতর ও পুলিশ। কোথায় ঘটল এমন ঘটনা! লকডাউনের মধ্যেই চোলাইয়ের রমরমা কারবার চলছিল পূর্ব বর্ধমানের ভাতারের বড় বেলুন গ্রামে। মঙ্গলবার দুপুরে ওই এলাকায় হানা দেয় আবগারি দফতর ও ভাতার থানার পুলিশ। অভিযানে কয়েক’শ লিটার চোলাই মদ উদ্ধার করা হয়। বাজেয়াপ্ত করা হয় প্রচুর পরিমাণ চোলাই মদ তৈরির সামগ্রী। পুলিশ ও আবগারি দফতরের আধিকারিকরা ওই এলাকায় ঢুকতেই এগিয়ে আসেন মহিলারা। পুলিশকে তাঁরা তাঁদের অসুবিধার কথা বলেন। একজন মহিলা পুলিশের সামনে বলেন, এই লকডাউন এর মধ্যেও বেশ কিছু মানুষ এখানে মদ তৈরি করছে এবং আমাদের স্বামীরা মদ খেয়ে এসে বাড়িতে প্রচুর ঝামেলা করছে ,মারধর করছে । আমরা চাই চোলাই মদ তৈরি সম্পূর্ণভাবে বন্ধ হয়ে যাক।

আবগারি দফতরের আধিকারিকরা জানান, বড় বেলুন গ্রামে প্রচুর পরিমাণ মদ তৈরি হচ্ছে বলে আমাদের কাছে অভিযোগ আসছিল । সেই খবর পেয়ে আজকে আমরা ভাতার থানার পুলিশের সাহায্য নিয়ে এই এলাকায় এসেছি। এখানে প্রচুর মদের সামগ্রী পেয়েছি এবং প্রচুর চোলাই নষ্ট করেছি। এরকম অভিযান ধারাবাহিক ভাবে চলবে। লক ডাউনের জেরে মদ বিক্রি বন্ধ। কালোবাজারি চলছিল দেশি ও বিলিতি মদের। সেই সঙ্গেই চাহিদা বেড়েছে চোলাইয়ের। এর ফলে বিষমদে মৃত্যুর আশঙ্কা রয়েছে বলে  সাবধান করে প্রচারও চালাচ্ছে আবগারি দফতর। তার মধ্যেই গোপনে চলছিল এই চোলাই কারবার। আবগারি দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, মদ বিক্রি বন্ধ থাকায় চোলাই তৈরির প্রবণতা বাড়ছে। তাই আউশগ্রাম থেকে শুরু করে বর্ধমানের বিজয়রাম, মেমারির মন্ডলগ্রাম সহ ভাতার মন্তেশ্বর - সব এলাকাতেই নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

Published by: Simli Raha
First published: April 21, 2020, 5:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर