• Home
  • »
  • News
  • »
  • south-bengal
  • »
  • লকডাউনের মাঝেই তুমুল বোমাবাজি পূর্ব বর্ধমানের গলসিতে

লকডাউনের মাঝেই তুমুল বোমাবাজি পূর্ব বর্ধমানের গলসিতে

শনিবার গলসি ১ নম্বর ব্লকের পুড়শা গ্রামে বোমাবাজি

শনিবার গলসি ১ নম্বর ব্লকের পুড়শা গ্রামে বোমাবাজি

শনিবার গলসি ১ নম্বর ব্লকের পুড়শা গ্রামে বোমাবাজি

  • Share this:

 #পূর্ব বর্ধমান: লকডাউনের মাঝেই ব্যাপক বোমাবাজিতে উত্তপ্ত হয়ে উঠল পূর্ব বর্ধমানের গলসি। শনিবার গলসি ১ নম্বর ব্লকের পুড়শা গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।  আতঙ্কিত হয়ে পড়েন গ্রামবাসীরা। বোমাবাজি ছাড়াও বেশ কয়েকটি বাড়ি, মোটর সাইকেল ভাঙচুর করা হয়। বোমাবাজির  হাত থেকে রেহায় পায়নি গবাদি পশুরাও। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশবাহিনী গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়। উত্তেজনা  থাকায় এলাকায় পুলিশ পিকেট বসেছে। বোমাবাজি ও সংঘর্ষে জড়িত থাকার অভিযোগে বেশ কয়েকজনকে আটক করেছে গলসি থানার পুলিশ।

শনিবার বেলা তখন দশটা। বোমার শব্দে কেঁপে ওঠে পুড়ষা গ্রাম। বেশ কয়েকটি বোমা পড়ে। এরপর শুরু হয় পাল্টা বোমাবাজি। লকডাউনে গৃহবন্দি বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। বেশ কয়েকটি বাড়িতে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। বাড়ির জিনিসপত্র ভাঙচুর করা হয়। মারধরও করা হয় অনেককেই। বাদ যায়নি কোলের শিশুও । বোমায় আহত হয়েছে গবাদি পশুরাও।  বোমাবাজির খবর পেয়ে বিশাল পুলিশবাহিনী ওই গ্রামে ঢোকে। বোমাবাজি তখনও চলছিল। পুলিশ ধরপাকড় শুরু করতেই বোমাবাজি বন্ধ হয়।

পুলিশ পিকেটিং উঠে গেলে ফের শুরু হতে পারে বোমাবাজি, এই আতঙ্কেই কাঁটা  হয়ে রয়েছেন গ্রামবাসীরা। লকডাউনের মধ্যে এতো বোমা কোথা থেকে এলো ? প্রশ্ন তুলেছেন বাসিন্দারা। তাঁদের অভিযোগ, তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পুড়ষা গ্রাম। এলাকা দখলকে কেন্দ্র করেই সংঘর্ষ শুরু হয়। শনিবার সকালে একদল দুষ্কৃতী ওই গ্রামের বাসিন্দা আসগর মণ্ডলের বাড়িতে হামলা চালায়। বাড়িতে ভাঙচুর চালানো হয়, ছোড়া হয় বোমা!  তারই পাল্টা হিসেবে শুরু হয় বোমাবাজি। মুড়ি-মুড়কির মতো বোমা পড়তে শুরু করে। কয়েকটি বাড়িতে ফের ভাঙচুর লুটপাট চালানো হয়। পুলিশ জানিয়েছে, সংঘর্ষে জড়িতদের গ্রেফতার করা হবে। গ্রামে বোমা মজুত রয়েছে কিনা তা  তল্লাশি করে দেখা হবে।

Saradindu Ghosh

Published by:Rukmini Mazumder
First published: